kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

৭৫-এর প্রতিরোধ যোদ্ধাদের দেশে ফেরানোর দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ করায় ভারতে দেশান্তর আট শতাধিক প্রতিরোধ যোদ্ধাকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে। গতকাল রবিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে প্রতিরোধ যোদ্ধাদের সংগঠন ‘সাধারণ প্রতিরোধ যোদ্ধারা-৭৫’-এর উদ্যোগে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

এ সময় প্রতিরোধ যোদ্ধারা জানান, বঙ্গবন্ধু হত্যার পর দেশের বিভিন্ন অংশে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন তাঁরা। হত্যাকারীদের অত্যাচারে ভারতের আসাম ও মেঘালয়ে আশ্রয় নেন অনেকে।

বিজ্ঞাপন

এর মধ্যে সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা থানার বাঙ্গালিভিটা গ্রামের ৬২টি আদিবাসী পরিবার রয়েছে। কোনো সরকারই তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেনি।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন হত্যাকাণ্ডের পর প্রতিরোধ যুদ্ধে অংশ নেওয়া কবিরুল ইসলাম বেগ, রতীশ তালুকদার, হায়দার মাস্টার, স্বপন চন্দ প্রমুখ।

এ সময় কবিরুল ইসলাম বেগ বলেন, ‘প্রতিরোধ যোদ্ধাদের জন্য সরকারি কোষাগার থেকে সাহায্য বন্ধ করা হোক। কারণ আমাদের নাম ভাঙিয়ে প্রধানমন্ত্রী তহবিল থেকে বরাদ্দের নামে লুটপাট করা হয়। অথচ আমরা এসব চাই না। আমরা চাই আমাদের সহযোদ্ধাদের কবর জন্মভূমিতেই হোক। বঙ্গবন্ধুর কন্যার শাসনামলে জাতির পিতা হত্যার প্রতিবাদকারীরা আসাম-মেঘালয়ে নির্বাসনে থাকতে পারে না। ’

প্রতিরোধ যোদ্ধাদের সংগঠন ‘সাধারণ প্রতিরোধ যোদ্ধারা-৭৫’-এর সভাপতি রতীশ তালুকদার বলেন, ‘প্রতিরোধ যুদ্ধে আমরা বাঙ্গালিভিটা দখল করেছিলাম। যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর গ্রামের বাসিন্দা, আমার সহযোদ্ধা আশুতোষ সাংমা, বিজন সরকার, বিমল দের ওপর অত্যাচার চালানো হয়। এরপর তাঁরা ভারতে আশ্রয় নেন। ’



সাতদিনের সেরা