kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ অক্টোবর ২০২২ । ২১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস বললেন

যুক্তরাষ্ট্র বিশেষ কোনো দলকে সমর্থন করে না

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্র বিশেষ কোনো দলকে সমর্থন করে না

ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল আয়োজিত রাজনৈতিক ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম ‘পলিটিকস ম্যাটার্স’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মুখোমুখি হয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী হাছান মাহ্‌মুদ এবং বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। ওই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস বলেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের বিশেষ কোনো দলকে আগেও সমর্থন করেনি, এখনো করে না। ’ তিনি বলেন, ‘সংকট মোকাবেলায় সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের চেয়ে ভালো কোনো সমাধান নেই। তবে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করা কঠিন।

বিজ্ঞাপন

সে জন্য রাজনৈতিক দল, নির্বাচন কমিশন, সুধীসমাজ ও গণমাধ্যমের সমন্বয়ে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে হবে। কেউ বাধা সৃষ্টি করলে স্বচ্ছ নির্বাচন হবে না। ’

গতকাল বুধবার রাজধানীর গুলশানে একটি হোটেলে ‘পলিটিকসম্যাটার্স.কম.বিডি’ প্ল্যাটফমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, “আমরা নির্বাচন বর্জন ও প্রতিহতের সংস্কৃতি লালন করি। তাই সব দলকে নির্বাচন বর্জন ও ‘না’ বলার সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। সব কিছুতে ‘না’ বলার রাজনৈতিক সংস্কৃতি আমাদের রাজনীতিতে তিক্ততা বাড়িয়েছে। ’

তিনি বলেন, ‘দেশে গণতান্ত্রিক সরকার রাষ্ট্র চালাচ্ছে। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা কোনো একক দলের দায়িত্ব নয়। সব রাজনৈতিক দলের দায়িত্ব গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থা টিকিয়ে রাখা। আমাদের গত ৫০ থেকে ৫১ বছরের ইতিহাসে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থা তখনই হুমকির মুখে পড়েছে, যখন কেউ অস্ত্র উঁচিয়ে রাষ্ট্রের ক্ষমতা দখল করেছে। তখন দেশের গণতন্ত্র হুমকির মুখে পড়েছে। আমি আশা করি, আগামী নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করবে। একটি অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশে আগামী সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। সব দলের অংশগ্রহণে আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে বলে আশা করছি। ’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করা জরুরি। তা না হলে বর্তমান সংকটের সমাধান হবে না। ’



সাতদিনের সেরা