kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৩০ সফর ১৪৪৪

অবশেষে পানিতে পূর্ণ হলো বাঘের বেষ্টনীর চৌবাচ্চা

ডুলাহাজারায় বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অবশেষে পানিতে পূর্ণ হলো বাঘের বেষ্টনীর চৌবাচ্চা

কক্সবাজারের চকরিয়ার ডুলাহাজারায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের বাঘের বেষ্টনীর চৌবাচ্চাটি অবশেষে পানিতে পূর্ণ হলো। সেই সঙ্গে শুরু হয়েছে বেষ্টনীর অন্যান্য চৌবাচ্চাসহ পার্কের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ। এদিকে অনিয়মের খবর যাতে বাইরে না যায়, সে জন্য পার্কের ছবি তুলতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল রবিবার কালের কণ্ঠে ‘বাঘ-সিংহের বেষ্টনীতে পানিশূন্য চৌবাচ্চা’ শীর্ষক একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশের পর পার্কের কর্মীরা সক্রিয় হন।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনটি প্রকাশের পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ পার্ক পরিদর্শন করবে বলে ধারণা পার্কের কর্মীদের। এ কারণে তাঁরা পশুপাখির যত্নের চেয়েও বেষ্টনীর ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতায় জোর দিয়েছেন। তবে সিংহের চৌবাচ্চায় গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত পানি দেওয়া হয়নি।

এদিকে পার্কটির নানা অনিয়ম-বিশৃঙ্খলার খবর যাতে বাইরে না যায়, সে জন্য পার্কের কর্মীরা দর্শনার্থীদের মুঠোফোনে ছবি ধারণের বিষয়ে কড়া নজরদারি করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সেভ দ্য নেচার অব বাংলাদেশ নামের পরিবেশবাদী সংগঠনের সভাপতি মোয়াজ্জেম রিয়াদ গতকাল সন্ধ্যায় কালের কণ্ঠের কাছে এমন অভিযোগ তুলে বলেন, ‘কালের কণ্ঠে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশের পর আমি আজ (গতকাল) পৃথক সময়ে আমার সংগঠনের দুই কর্মীকে সেখানে পাঠিয়েছিলাম ছবি ধারণের জন্য। কিন্তু বাঘ ও সিংহের বেষ্টনীর কর্মীদের বাধার কারণে কোনো ছবি নিতে পারেননি তাঁরা। ’

পরিবেশবাদী মোয়াজ্জেম রিয়াদের অভিযোগ, পার্কটির অভ্যন্তরে ৩২ কোটি টাকার উন্নয়নকাজ চলমান। এসব উন্নয়ন প্রকল্প নিয়ে বড় ধরনের ঘাপলার অভিযোগও উঠেছে। তিনি ৯০০ হেক্টরজুড়ে বিশাল পার্কটির অভ্যন্তরে নানা অনিয়ম-দুর্নীতির বিষয়ে তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

সাফারি পার্কের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরেস্টার মাজহারুল ইসলাম গতকাল সন্ধ্যায় অভিযোগের বিষয়ে কালের কণ্ঠকে বলেন, পার্কের অভ্যন্তরে কোনো অনিয়ম-দুর্নীতি নেই। বাঘ-সিংহের বেষ্টনীতে নিয়মমাফিক সবই করা হচ্ছে। কোনো দর্শনার্থীকে ছবি ধারণে বাধা দেওয়ার ঘটনাও সত্য নয়।



সাতদিনের সেরা