kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

তালতলীতে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় আহত ৩০

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি   

৩ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তালতলীতে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় আহত ৩০

বরগুনার তালতলীতে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন তপু এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার সোনাকাটা ইউনিয়নের ফকিরহাট বাজার ইদুপাড়া গ্রামে এই সহিংসতার ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৯ জুন সোনাকাটা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর পর থেকে ওই ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের তালা প্রতীকে নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য টুকু সিকদার ও তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী পরাজিত ফুটবল প্রতীকের প্রার্থী মন্টু খলিফার কর্মী- সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। শুক্রবার সন্ধ্যায় ফকিরহাট বাজারে ওই দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ দেশি অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সংঘর্ষে উভয় পক্ষের প্রায় ৩০ জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল, পটুয়াখালী, আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিজয়ী ইউপি সদস্য টুকু সিকদার বলেন, ‘পরাজিত সদস্য প্রার্থী মন্টু খলিফার লোকজন বাজারে বসে ভোট দেওয়া না দেওয়া নিয়ে সাধারণ জনগণের ওপর হামলা চালিয়েছে। ’

অন্যদিকে পরাজিত সদস্য প্রার্থী মন্টু খলিফা অভিযোগ করেন, বিজয়ী ইউপি সদস্য টুকু সিকদার ও তার লোকজন তাঁর (মন্টু) এবং তাঁর কর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে অনেকে আহত হয়েছে।

তালতলী থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন বলেন, এ ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ করেনি।

 

 



সাতদিনের সেরা