kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০২২ । ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অসহায় পরিবারকে টিউবওয়েল উপহার শুভসংঘের

রংপুর অফিস   

২৯ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অসহায় পরিবারকে টিউবওয়েল উপহার শুভসংঘের

রংপুরের তারাগঞ্জের হাঁড়িয়ারকুটি ইউনিয়নের কাশিয়াবাড়ী উজিয়াল তাঁতীপাড়া গ্রামের মৃত সুনীল শীলের স্ত্রী শ্রীমতী সবিতা রানী শীলের হাতে গতকাল টিউবওয়েলটি তুলে দেন কালের কণ্ঠ শুভসংঘের তারাগঞ্জ উপজেলা শাখার বন্ধুরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

রংপুরের তারাগঞ্জে এক অসহায় পরিবারকে একটি টিউবওয়েল উপহার দিয়েছেন কালের কণ্ঠ শুভসংঘের তারাগঞ্জ উপজেলা শাখার বন্ধুরা। গতকাল মঙ্গলবার হাঁড়িয়ারকুটি ইউনিয়নের কাশিয়াবাড়ী উজিয়াল তাঁতীপাড়া গ্রামের মৃত সুনীল শীলের স্ত্রী শ্রীমতী সবিতা রানী শীলের হাতে এ সহায়তা তুলে দেওয়া হয়।

পাইপ, গোড়া পাকাকরণ, মিস্ত্রিসহ টিউবওয়েলটি স্থাপনের জন্য পুরো খরচ বহন করবে শুভসংঘ তারাগঞ্জ শাখা।

টিউবওয়েলটি হস্তান্তরের সময় উপস্থিত ছিলেন শুভসংঘ তারাগঞ্জ শাখার উপদেষ্টা আব্দুস সাত্তার, অধ্যক্ষ আব্দুল হামিদ, রাসেল মণ্ডল ও কাজী নুর আলম, সভাপতি এনামুল হক দুখু, জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি সুজন বাবু, সহসভাপতি নাজমা খানম, সাধারণ সম্পাদক দীপংকর রায় দিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক রহমত মণ্ডল, হরলাল রায়, শাহাজাহান ইসলাম, লালবাবু রায়, বিশ্বজিৎ রায়, আহমেদ আয়াতুল্লাহ্ মেজবাহ্, তন্ময় রায়, আরাফাত হোসেন পলক প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

৭০ বছরের সবিতা রানী শীল বলেন, ‘মোর একটা বেটা আছে। অয় হামার বাড়ির কাছোতে কাশিয়াবাড়ী বাজারোত মানুষের মাথার চুল কাটার কাম করে। ওরও তো ছোয়া আছে। সেলুনোত তেমন কামাই হয় না। হামারগেরে খুব কষ্ট বাবা। মোর বাড়িত কল নাই। মাইনসের বাড়ির কল থাকি পানি নিয়া আসি। তোমরা মোক যে কলটা দিলেন বাবা, মোর খুব ভালো হইল। মোক আর কষ্ট করি মাইনসের বাড়ি থাকি পানি উবি আইনবার নাগবে না। ভগবান তোমার অনেক ভালো করবে। ’

সবিতা রানীর ছেলে সবুজ চন্দ্র শীল বলেন, ‘সেলুনে যা আয় হয় তা দিয়ে কোনো রকম দুই বেলা পেটে ভাত দিতে পারি। মা বয়স্ক মানুষ; অন্যের বাড়ি থেকে জল নিয়ে আসে। তারা অনেক সময় মায়ের ওপরে রাগ হয়। এতে আমার খুব কষ্ট হয়। কিন্তু টিউবওয়েল কেনার সামর্থ্য আমার নেই। আপনারা টিউবওয়েলটি দিলেন। সৃষ্টিকর্তা আপনাদের ভালো করবেন। ’

শুভসংঘ তারাগঞ্জের উপদেষ্টা আব্দুস সাত্তার বলেন, ‘আপনাদের টিউবওয়েল উপহার দিতে পারায় আমাদের সবারই ভালো লাগছে। ’



সাতদিনের সেরা