kalerkantho

মঙ্গলবার। ৯ আগস্ট ২০২২ । ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১০ মহররম ১৪৪৪

হাইকোর্টের রায়

শিক্ষার্থী ভর্তির বাধা কাটল গণস্বাস্থ্য মেডিক্যাল কলেজের

২০০৩ সালে কলেজটি ৮০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করানোর অনুমতি পায়। পরে ২০১০ সালে ১১০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমতি দেওয়া হয়

নিজস্ব প্রতিবেদক    

২৯ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজে শিক্ষার্থী ভর্তি সীমিত করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট। এসংক্রান্ত দুটি চিঠির বৈধতা প্রশ্নে জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে গতকাল মঙ্গলবার এ রায় দেন বিচারপতি কাশেফা হোসেন ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

১৯৯৮ সালে ঢাকার সাভারে গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। ২০২০ সালে এটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়।

বিজ্ঞাপন

এর আগে কলেজটি গণবিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ছিল। ২০০৩ সালে কলেজটি ৮০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করানোর অনুমতি পায়। পরে ২০১০ সালে ১১০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমতি দেওয়া হয়। এর পর থেকে প্রতিবছর ১১০ জন করে শিক্ষার্থী ভর্তি করে আসছিল কলেজটি।

২০২০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হওয়ার পর ওই বছরের ১৪ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ চিঠি দিয়ে জানায়, কলেজটিতে ৫০ জনের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি করা যাবে না। এ সিদ্ধান্ত বাতিলে আপিল করা হলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ১০ জন বাড়িয়ে ৬০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমতি দেয়।

পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি সিদ্ধান্তই চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডা. মুহিব উল্লাহ খন্দকার। সেই রিটের প্রাথমিক শুনানির পর গত বছর ২৪ নভেম্বর হাইকোর্ট সিদ্ধান্ত দুটির বৈধতা প্রশ্নে রুল জারি করেন।

গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজে শিক্ষার্থী ভর্তি ১১০ জন থেকে কমিয়ে প্রথমে ৫০ জন এবং পরে ১০ জন বাড়িয়ে শিক্ষার্থী ভর্তি ৬০ জনে সীমিত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন বেআইনি ও আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, জানতে চাওয়া হয় রুলে। শিক্ষাসচিব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়। সেই রুলের শুনানির পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণা করলেন হাইকোর্ট।

রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন। রিটকারীর পক্ষে রুলের শুনানি করা আইনজীবী এ কে এম ফখরুল ইসলাম বলেন, এ রায়ের ফলে গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিক্যাল কলেজ আগের মতোই বছরে ১১০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করতে পারবে।



সাতদিনের সেরা