kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১০ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২৮ সফর ১৪৪৪

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী

বাজেটে শিশুদের পেছনে ব্যয় বাড়ানো প্রয়োজন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম বলেছেন, বাল্যবিবাহ ও শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া দেশের জন্য বড় সমস্যা। একই সঙ্গে দারিদ্র্যের কারণে শিশুদের কাজ করতে দিতে হয়, ফলে শিশুশ্রমও বন্ধ হচ্ছে না। আর এসব কারণে বাজেটে শিশুদের পেছনে ব্যয় বাড়ানো প্রয়োজন।

গতকাল সোমবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে চিলড্রেন অ্যাফেয়ার্স জার্নালিস্টস নেটওয়ার্ক, আরবান প্রগ্রাম, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে ‘জাতীয় বাজেটে শিশুর জন্য সুনির্দিষ্ট বরাদ্দ নিশ্চিত করা জরুরি’ শীর্ষক আলোচনাসভায় তিনি এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে শিশুদের পেছনে ব্যয় বাড়ানো প্রয়োজন, কারণ ১৮ শতাংশ শিশু পড়াশোনা থেকে ঝরে পড়ে। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় শিশুদের নিয়ে খেলা ও সংস্কৃতির আয়োজন করে, তবে এগুলো পর্যাপ্ত নয়।

শামসুল আলম বলেন, বাজেটে বরাদ্দের সমস্যা নয়, সমস্যা হচ্ছে বাস্তবায়নের। উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে বাজেট বরাদ্দের বাস্তবায়ন শতভাগ হয় না। পরে সংশোধিত বাজেটে সমন্বয় করতে হয়।  

খেলার মাঠে ওয়াকওয়ে থাকার সমালোচনা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ছেলেমেয়েদের জলাঞ্জলি দিয়ে বড়দের হাঁটতে দেব কেন? শিশুদের গুরুত্ব দিতে হবে। ঢাকা শহরের মাঠগুলোকে যেভাবে হত্যা করা হয়েছে, সেগুলোকে ফিরিয়ে আনতে হবে। মাঠে তালা না লাগিয়ে মাঠগুলোকে শিশুদের জন্য উন্মুক্ত করতে হবে।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য শবনম জাহান শিলা এবং বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ।

আলোচনাসভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের অধ্যাপক আবু ইউসুফ।

 

 



সাতদিনের সেরা