kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

বসুন্ধরার ত্রাণ পেল আট হাজার মানুষ

সিলেট অফিস   

২৫ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বসুন্ধরার ত্রাণ পেল আট হাজার মানুষ

সিলেটের কানাইঘাটে জামেয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম দারুল হাদিস মাদরাসায় চলছে বসুন্ধরা গ্রুপের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম। গতকাল তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

নুরুল হকের বাড়ি সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার বিষ্ণপুর গ্রামে। তাঁর পরিবারে সদস্য ছয়জন। ঘরে খাবার নেই। তাই এসেছেন বসুন্ধরা গ্রুপের দেওয়া ত্রাণ নিতে।

বিজ্ঞাপন

চাল, ডালসহ প্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যে ভরা ত্রাণের বস্তা হাতে নিয়ে উচ্ছ্বসিত নুরুল হক বলেন, ‘চাইর দিন পর আইজ ভাত খাইমু। ই কয়দিন খুব কষ্টে গেছে বাবা। বাইচ্চা-কাইচ্চা নিয়ে কি দুর্ভোগর মাঝে আছলাম কইয়া শেষ অইত নায়। ’

গতকাল শুক্রবার কানাইঘাট জামেয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম দারুল হাদিস মাদরাসা প্রাঙ্গণে আড়াই হাজার বানভাসি মানুষের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করে বসুন্ধরা গ্রুপ। প্রতিষ্ঠানটি এ ছাড়া এদিন সিলেটের বানভাসি মানুষের জন্য জেলা প্রশাসকের কাছে সাড়ে পাঁচ হাজার প্যাকেট খাদ্যসামগ্রী হস্তান্তর করেছে। এসব প্যাকেটে রয়েছে পাঁচ কেজি চাল, দুই কেজি ডাল, ২৫০ গ্রাম মুড়ি, দেড় লিটার মিনারেল ওয়াটারের বোতল এবং ১০ প্যাকেটের এক বাক্স খাবার স্যালাইন।

কানাইঘাটে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় বসুন্ধরার ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সেনানিবাসের মেজর আহমাদুর রহমান ও ক্যাপ্টেন শরীফ। বসুন্ধরার পক্ষে উপস্থিত ছিলেন গ্রুপের ফরেন অ্যাডভাইজার সাজ্জাদ হায়দার, হেড অব পাবলিক রিলেশন অফিসার (পিআর) শেখ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, পিআর শাখা কর্মকর্তা মেজর (অব.) জুবায়ের আহমেদ সরকার, স্কোয়ার্ডন লিডার (অব.) গোলাম মোস্তফা, লে. আব্দুল মান্নান, এমডির সেক্রেটারি আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

এদিন সিলেটের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে সাড়ে পাঁচ হাজার প্যাকেট ত্রাণ হস্তান্তর করেন বসুন্ধরা গ্রুপের ফরেন অ্যাডভাইজার সাজ্জাদ হায়দারসহ কর্মকর্তারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. নুরুল ইসলাম, এনডিসি পল্লব হোম দাস।

জেলা প্রশাসক মো. মজিবর রহমান বলেন, ‘বসুন্ধরার দেওয়া সাড়ে পাঁচ হাজার প্যাকেট খাবার বন্যাকবলিত উপজেলাগুলোতে দ্রুত পাঠিয়ে দেওয়া হবে। কুশিয়ারা নদীর পানি বাড়ায় যেসব এলাকা নতুন করে বন্যাকবলিত হয়েছে সেসব এলাকাতেই এসব ত্রাণ যাবে। ’

সাজ্জাদ হায়দার বলেন, ‘বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর বন্যার্তদের জন্য ত্রাণ তো দিচ্ছেনই, এ ছাড়া নগদ টাকাও পাঠাচ্ছেন সব জায়গায়। ’ বসুন্ধরা সব সময় মানুষের পাশে আছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সিলেট ও মৌলভীবাজারে আরো ত্রাণ দেওয়া হবে। আগামীকাল প্রায় ১০ হাজার প্যাকেট ত্রাণ যাবে উত্তরবঙ্গের কুড়িগ্রাম ও নীলফামারীতে। এভাবে আমাদের প্রয়াস চলতে থাকবে ইনশাআল্লাহ। ’

 

 



সাতদিনের সেরা