kalerkantho

সোমবার । ১৫ আগস্ট ২০২২ । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৬ মহররম ১৪৪৪

সিলেটসহ পাঁচ জেলায় উন্নতির আশা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিলেটসহ পাঁচ জেলায় উন্নতির আশা

দেশের ভেতরে ও উজানে ভারি বৃষ্টিপাত কমায় সিলেটসহ পাঁচ জেলার বন্যা পরিস্থিতির আরো উন্নতি হতে পারে। তবে মধ্যাঞ্চলের ছয় জেলায় বন্যার অবনতির আশঙ্কা রয়েছে। এ পর্যন্ত দেশের ১৩টি জেলা বন্যাকবলিত হয়েছে। এ ছাড়া পদ্মা ও যমুনা নদী ছাড়া দেশের অন্য নদ-নদীর পানি কমতে শুরু করেছে।

বিজ্ঞাপন

গতকাল বুধবার বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র এ তথ্য জানিয়েছে।

বন্যা সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানিয়েছে, দেশের ১১টি নদ-নদীর পানি ২১টি স্থানে বিপত্সীমার ওপর দিয়ে বইছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া বলেন, ব্রহ্মপুত্র নদের পানি স্থিতিশীল আছে, অন্যদিকে যমুনা ও গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি বাড়ছে। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে কুশিয়ারা ও তিতাস ছাড়া প্রধান সব নদ-নদীর পানি কমছে। তিনি বলেন, আগামী ৪৮ ঘণ্টা (শুক্রবার পর্যন্ত) দেশের অভ্যন্তরে এবং উজানের বিভিন্ন অংশে ভারি থেকে অতি ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। তাই আগামী ২৪ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের প্রধান নদ-নদীর (তিতাস ছাড়া) পানি কমতে পারে। অন্যদিকে গঙ্গা-পদ্মার পানি বাড়ছে।

এ নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, বৃহস্পতিবার (আজ) তিস্তা নদীর পানি কমতে পারে। এ সময় ধরলা ও দুধকুমার নদীর পানি স্থিতিশীল থাকতে পারে। একই সঙ্গে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও কিশোরগঞ্জ জেলার বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হতে পারে। একই সময়ে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া ও জামালপুর জেলার বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে, অন্যদিকে সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইলে পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হতে পারে।

এদিকে শরীয়তপুর ও মাদারীপুর জেলার নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদি বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।

 



সাতদিনের সেরা