kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ২৯ সফর ১৪৪৪

সাইকেলের চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

সড়কে নিহত আরো ২

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্কুলে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে গতকাল রবিবার সাইকেলের চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে মৃত্যু হয়েছে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী তৃষা জামানের (১৪)। এদিকে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে আম কুড়াতে গিয়ে গাড়িচাপায় হামিদা বেগম (৮৫) নামের এক বৃদ্ধা এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে ট্রাকচাপায় মো. মোতালেব (৫৭) নামের আরেক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

মেহেরপুর প্রতিনিধি জানান, তৃষা জামান মেহেরপুর সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তার বাবা মোমিনুজ্জামান মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের গাড়িচালক।

বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মোমিনের বাড়ির কাজের লোক পলাশ তাকে মোটরসাইকেলে করে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে পৌঁছানো মাত্র একটি বাইসাইকেল পাশ দিয়ে যেতেই তার ওড়না সাইকেলের সঙ্গে বেঁধে মোটরসাইকেল থেকে রাস্তার ওপর পড়ে যায় তৃষা। এ সময় একই দিকে আরেকটি পাওয়ারটিলার তৃষার মাথার ওপর দিয়ে চলে যায় এবং ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, গতকাল রবিবার সকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার রাতইল হর্টিকালচারের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত হামিদা বেগম কাশিয়ানী উপজেলার পশ্চিম রাতইল গ্রামের মৃত ইস্রাফিল মোল্লার স্ত্রী।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, গত শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পার্বতীপুর ইউনিয়নের আড্ডা থেকে সরাইগাছীগামী আঞ্চলিক সড়কের দেওপুরা মোড়ের অদূরে ঘটনাটি ঘটে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। ঘটনার পরপরই ট্রাকটি পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনার পরপরই অজ্ঞাতপরিচয় হিসেবে মরদেহ উদ্ধারের পর গতকাল বিকেলে সিআইডির ফরেনসিক এক্সপার্টদের ফিঙ্গারপ্রিন্ট বিশ্লেষণের সাহায্যে মরদেহের পরিচয় শনাক্ত করে। পরে নিহতের ভাই তাঁর পরিচয় নিশ্চিত করেন। মোতালেব নওগাঁ জেলার পোড়শা উপজেলার শীশাহাট মেধা গ্রামের হাসিমুদ্দিনের ছেলে।



সাতদিনের সেরা