kalerkantho

শনিবার । ২৫ জুন ২০২২ । ১১ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

তরুণী হেনস্তা

প্রতিবাদে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে ‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’

নরসিংদী প্রতিনিধি   

২৮ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রতিবাদে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে ‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’

নরসিংদী রেল স্টেশনে তরুণীর হেনস্তার ঘটনার প্রতিবাদে ‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’ শিরোনামে ২০ জন তরুণ-তরুণীর একটি দল ‘যে যার পছন্দমতো পোশাক’ পরে এখানে হাজির হন। গতকাল তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে তরুণী হেনস্তার ঘটনায় নিজেদের ‘পছন্দমতো পোশাক’ পরে স্টেশনটিতে এসে প্রতিবাদ জানিয়েছে ২০ জন তরুণ-তরুণীর একটি দল। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জগামী আন্ত নগর এগারোসিন্দুর ট্রেনে করে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে এসে নামেন তাঁরা।

প্রতিবাদকারীরা এ যাত্রার নাম দিয়েছেন ‘অহিংস অগ্নিযাত্রা’। তাঁদের দলে শিল্পী, সংগঠক, নাট্যকর্মী, চলচ্চিত্র নির্মাতা, আলোকচিত্রী, গবেষক, উন্নয়নকর্মী ও প্রকৌশলী রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

দলটির অন্তত ১৫ তরুণীর পরনে ছিল জিন্সের প্যান্ট ও টি-শার্ট। প্রতিবাদকারীরা জানান, গত ১৮ মে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে একজন তরুণী পোশাকের কারণে কুিসত আক্রমণ ও সহিংসতার শিকার হন। তাঁরা তাঁর পাশে দাঁড়াতে চেয়েছেন। তাঁর সঙ্গে ঘটে যাওয়া অন্যায়ের প্রতিক্রিয়া হিসেবে স্টেশনে এসেছেন। তাঁরা এটিকে প্রতিবাদ হিসেবে দেখছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতিবাদে অংশ নেওয়া ১৭ তরুণী ও তিন তরুণ অগ্নি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ নামের একটি সংগঠনের নারীবাদী গ্রাসরুটস অর্গানাইজিং প্ল্যাটফরম ‘মেয়ে নেটওয়ার্ক’সহ বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। একটি স্টোরিটেলিং প্রকল্প হিসেবে তাঁরা ‘পিতৃতন্ত্রে নারীর আগুনে মোড়ানো পথের গল্পগুলো’ তুলে আনেন। ঢাকা-নরসিংদী যাত্রা এরই অংশ। এই প্রতিবাদ কর্মসূচির সংগঠক অগ্নি ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের সভাপতি তৃষিয়া নাশতারান। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আজ আমরা নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশন ও এখানকার মানুষদের দেখতে এসেছি। তাদের সঙ্গে আমরা মানবিক যোগাযোগ স্থাপন করতে চেয়েছি। আমাদের উদ্দেশ্য, শান্তিপূর্ণভাবে জনপরিসরে শরীর ও পোশাকের স্বাধীনতার জায়গা রিক্লেইম করা। আমাদের বৈচিত্র্যময় শারীরিক উপস্থিতিই আমাদের বক্তব্য। ’

 



সাতদিনের সেরা