kalerkantho

সোমবার । ১৫ আগস্ট ২০২২ । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৬ মহররম ১৪৪৪

বিনা ভোটে এবারও জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হচ্ছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৭ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে প্রথম নির্বাচনেও বিনা ভোটে জনপ্রতিনিধি হওয়ার ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে।   আগামী ১৫ জুন কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণের  দিন দেশের ছয়টি পৌরসভা এবং ১৩৬টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার ছিল এসব নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিনা ভোটে কাউন্সিলর হতে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত দুজন প্রার্থী।

বিজ্ঞাপন

এঁরা হচ্ছেন ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সৈয়দ রায়হান আহমেদ ও ১০ নম্বর ওয়ার্ডের মঞ্জুর কাদের মণি। তাঁরা একক প্রার্থী হিসেবে রিটার্নিং অফিসারের কাছে  মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন  রিটার্নিং অফিসার মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী।

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পথে। গতকাল মনোনয়নপত্র প্রত্যারের শেষ দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাচন কর্তকর্তা মো. আব্দুর রশিদ শেখ।  

তিনি জানান, এই ইউনিয়ন পরিষদের মোট তিনজন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম সরদার ও শাকিল মাহমুদ বাচ্চু তাঁদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ফলে চেয়ারম্যান পদে ভোটের প্রয়োজন হচ্ছে না।

এ ছাড়া ঝালকাঠির বাসন্ডা ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. সাবের হোসেন নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলার গুনাইঘার দক্ষিণ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে বিনা ভোটে মেম্বার নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আবদুল আলিম।

গোপালগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মো. এবাদুল হক বিনা ভোটে নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।  

এদিকে ১৫ জুনের নির্বাচনে মোট কতজন বিনা ভোটে জনপ্রতিনিধি হতে যাচ্ছেন, তা  নির্বাচন কমিশন গতকাল প্রকাশ করেনি। তবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, এবার এ সংখ্যা আগের তুলনায় কিছুটা কম হতে পারে।  

 

 

 



সাতদিনের সেরা