kalerkantho

শুক্রবার । ১৯ আগস্ট ২০২২ । ৪ ভাদ্র ১৪২৯ । ২০ মহররম ১৪৪৪

হাতিরঝিলে ‘ওয়াটার ট্যাক্সি’ নিষিদ্ধ করার পরামর্শ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সব ধরনের যান্ত্রিক যান চলাচল পানির জন্য ক্ষতিকর উল্লেখ করে রাজধানীর হাতিরঝিল লেকে ‘ওয়াটার ট্যাক্সি’ সেবা নিষিদ্ধ করার পরামর্শ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ী প্রকল্পটি বিজ্ঞানী স্যার জগদীশ চন্দ্র বসুর নামে নামকরণ করে লেকটি মাছের ‘অভয়ারণ্য’ করার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে।

প্রকল্পটিকে পাবলিক ট্রাস্ট (জনসম্পত্তি) ঘোষণা করে গত বছর হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছিলেন তারই পূর্ণাঙ্গ রায়ে এ পরামর্শ এসেছে। গতকাল মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে এটি প্রকাশ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

৫৫ পৃষ্ঠার রায়টি লিখেছেন বেঞ্চের বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল এবং বিচারপতি রাজিক আল জলিল।

রায়ে হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ী প্রকল্প এলাকার হোটেল, রেস্তোরাঁ, দোকানসহ সব ধরনের ব্যাবসায়িক-বাণিজ্যিক বরাদ্দ অবৈধ এবং বাতিল ঘোষণা করে এসব উচ্ছেদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রায়ের প্রত্যায়িত অনুলিপি পাওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে তা করতে বলা হয়েছে।

২০১৮ সালের ১ আগস্ট পরিবেশবাদী মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) পক্ষে জনস্বার্থে এই রিট করা হয়। এতে হাতিরঝিল প্রকল্প এলাকায় মূল পরিকল্পনার বাইরে থাকা সব ধরনের ব্যাবসায়িক ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান অপসারণের নির্দেশ চাওয়া হয়। ওই রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছর ৩০ জুন রায় দেন হাইকোর্ট।

রিটের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। আর রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. ইমাম হাছান।

রায় প্রকাশের পর আইনজীবী মনজিল মোরসেদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘হাইকোর্টের এই রায়ে আপিল বিভাগের স্থিতাবস্থা বা স্থগিতাদেশ না থাকলেও এখন পর্যন্ত হাতিরঝিল প্রকল্প এলাকায় নকশাবহির্ভূত ব্যাবসায়িক বা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান চলছে।



সাতদিনের সেরা