kalerkantho

শুক্রবার । ৭ অক্টোবর ২০২২ । ২২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

লাশ ভেবে উদ্ধার করা হয় ঘুমন্ত যুবককে!

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাথরুমে লাশ পড়ে আছে এমন খবরে হৈচৈ শুরু হয় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে। বাথরুমের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ থাকায় তা ভাঙার তোড়জোড় শুরু হয়। এর মধ্যে খবর পেয়ে লাশ দেখতে ভিড় করে অনেক উত্সুক ব্যক্তি। এরপর পুলিশের উপস্থিতিতে ভাঙা হয় সেই বাথরুমের দরজা।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু লাশের পরিবর্তে সেখান থেকে উদ্ধার করা হয় এক ঘুমন্ত যুবকের দেহ।   হাসপাতাল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, ঘুমন্ত ওই যুবকের নাম মনির। তিনি মাদকাসক্ত। ছিন্নমূল ওই মাদকসেবীকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া জানান, গতকাল শনিবার সকাল থেকেই গুঞ্জন ওঠে জরুরি বিভাগে প্রবেশের বাঁ দিকে একটি খালি রুমের (ট্রলিরুম) বাথরুমের ভেতর থেকে দরজা বন্ধ অবস্থায় একজন পড়ে আছেন। কর্তব্যরত আনসার সদস্যরা ঘণ্টাব্যাপী দরজা ধাক্কাধাক্কি করলেও কোনো সাড়া মেলেনি। পরে স্টাফদের পাশাপাশি খবর দেওয়া হয় হাসপাতাল পুলিশকে। এরই মধ্যে অনেকে বাথরুমের বিভিন্ন জায়গা দিয়ে উঁকি দিয়ে দেখার চেষ্টা করে। তারা একেকজন একেক মন্তব্য করতে থাকে। কেউ বলে, বোরকা পরা কোনো ব্যক্তি, আবার কেউ কেউ বলতে থাকে লুঙ্গি ও কালো রঙের বোরকা পরা দুজন আছে। এক পর্যায় ঘটনাটি জানানো হয় হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হককে। এরই মধ্যে সেখানে সরকারি স্টাফদের পাশাপাশি রোগীর স্বজনরাও অবস্থান নেয়।



সাতদিনের সেরা