kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

পিবিআই পরিদর্শকের বিরুদ্ধে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৬ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খুলনায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মঞ্জুর আহসান মাসুদের বিরুদ্ধে এক কলেজছাত্রীকে (২০) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ছাড়া পৃথক ঘটনায় নাটোরে মাদরাসাছাত্রী ধর্ষণ এবং ঝালকাঠিতে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার খবর পাওয়া গেছে।

রবিবার দুপুরে খুলনা মহানগরীর ৯ নম্বর ছোটমির্জাপুর রোডে পিবিআই পরিদর্শকের ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ধর্ষণের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ওই কলেজছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

জানা যায়, ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী ফেসবুকের ছবিসংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে পাঁচ দিন আগে পিবিআই পরিদর্শক মাসুদের কাছে যান। তাঁকে সহযোগিতার কথা বলে মাসুদ ৯ নম্বর ছোটমির্জাপুর রোডের কাগজী হাউসে একটি পত্রিকা অফিসের কক্ষে নিয়ে যান। সেখানে দীর্ঘক্ষণ অবস্থান করে সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ করেন ওই কলেজছাত্রী। ঘটনার পর ভুক্তভোগী রবিবার দুপুরে খুলনা সদর থানায় অভিযোগ করেন। এরপর তাঁকে নিয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান। অফিসটি তালাবদ্ধ থাকায় পুলিশ তালা ভেঙে প্রবেশ করে।

খুলনা সদর থানার ওসি হাসান আল মামুন বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। কলেজছাত্রীকে মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি ও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। ’

নাটোর : বড়াইগ্রামে নানার বাড়ি থেকে ফেরার পথে জোরপূর্বক আখক্ষেতে নিয়ে এক মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা করেন। এ ঘটনায় রবিবার আদালতে ভিকটিমের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সিঙ্গাপুরপ্রবাসী নাজমুল হাসান নাহিদ তাকে ধর্ষণ করলে মেয়েটির কান্নার শব্দে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে ধর্ষক পালিয়ে যান।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি আবু সিদ্দিক জানান, অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।



সাতদিনের সেরা