kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

ইসি আইন করে শেষ রক্ষা হবে না : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাতীয় সংসদে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও কমিশনার নিয়োগে পাস হওয়া বিল প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। দলটি বলেছে, এটি জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। এই আইন তাঁরা মানেন না। আইন করেও সরকারের শেষ রক্ষা হবে না।

বিজ্ঞাপন

গতকাল বৃহস্পতিবার সংসদে বিলটি পাসের পর এক আলোচনাসভায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এসব কথা বলেন। জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘বাকশাল ও গণতন্ত্র হত্যার কালো দিবস’ উপলক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি যৌথভাবে সভার আয়োজন করে।   

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের এই আইন আমরা মানি না। এই আইন শুধু আমাদের কাছে নয়, দেশের মানুষের কাছেও গ্রহণযোগ্য নয়, গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। যে আইন মানুষ গ্রহণ করে না, সেটি কোনো আইন-ই নয়। এটিকে কেউ মানবে না। আমাদের স্থায়ী কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্তের কথা আপনাদের জানিয়েছি, এই আইন পাস করার কোনো এখতিয়ার এই সংসদের নেই। কারণ, এই সংসদ জনগণের নির্বাচিত নয়। ’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। সরকারকে পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, ওই নিরপেক্ষ সরকার সব রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠন করবে। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সেই ইসির পরিচালনায় নির্বাচন হবে।

‘তড়িঘড়ি করে’ বিল পাসের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই আইন ১৭ জানুয়ারি মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পেয়েছে। ২৩ জানুয়ারি সংসদে দেওয়া হয়েছে। বিলে সংযোজন বা পরিবর্তন কিছু থাকলে সেটি করতে সংসদীয় কমিটিকে এক সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে। ২৪ ঘণ্টাও যায়নি, এরই মধ্যে তারা এটি সংসদে এনে পাস করল। আওয়ামী লীগ ভুলে গেছে, বাকশাল করে শেষ রক্ষা হয়নি। এই নির্বাচন কমিশন আইন করেও শেষ রক্ষা হবে না। ’



সাতদিনের সেরা