kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

দীপু মনির বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

২৭ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, চাঁদপুর-৩ (সদর ও হাইমচর) আসনের সংসদ সদস্য ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচারের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের একাংশ।

গতকাল বুধবার দুপুরে চাঁদপুর প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এতে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মো. ইউসুফ গাজী। ইউসুফ গাজী লিখিত বক্তব্যে বলেন, একজন সৎ ও সফল রাজনীতিবিদ হিসেবে দেশে-বিদেশে পরিচিত ডা. দীপু মনিকে কী উদ্দেশ্যে জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দুর্নীতির মিথ্যা অভিযোগ এনে সুনাম ও সম্মান নষ্ট করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে তা উদঘাটিত হওয়া প্রয়োজন।

বিজ্ঞাপন

চাঁদপুরে কোনো অধিগ্রহণ করা জমিতে কোথাও কখনো ডা. দীপু মনি বা তাঁর পরিবারের জমি ছিল না। তাঁর উদ্যোগে চাঁদপুর-হাইমচরে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করা হয়। সেখানে জমির মূল্য শতাংশপ্রতি পাঁচ হাজার টাকা থেকে কয়েক লক্ষ টাকায় উন্নীত হয়। সরকারের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ লাভের আশায় বা অন্য কোনো উদ্দেশ্যে সেখানেও ডা. দীপু মনি বা তাঁর পরিবার কখনো কোনো জমি ক্রয় করেনি।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, অধিগ্রহণের জন্য নির্ধারিত জমির মূল্য ইচ্ছাকৃতভাবে বৃদ্ধি করে হস্তান্তরের ঘটনা যদি ঘটে থাকে, তবে তার সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন বলে ডা. দীপু মনি মনে করেন।

মো. ইউসুফ গাজী আরো বলেন, ‘চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমদ এরই মধ্যে বিদেশ থেকে নিয়ন্ত্রিত একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক। জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি হিসেবে তিনি এ ধরনের বক্তব্য দিতে পারেন না। সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানো অনলাইন নিউজ পোর্টালে তাঁর এই বক্তব্য দেশ ও সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রের শামিল। দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে সরকারের একজন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক নগ্ন অপপ্রচারকে উসকে দিয়ে তিনি প্রকৃতপক্ষে সরকার ও দলের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন বলে আমরা মনে করি। ’



সাতদিনের সেরা