kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৮ জুন ২০২২ । ১৪ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

শাবিপ্রবির আন্দোলন

শিক্ষার্থীদের সমর্থনে রাবি শিক্ষক নেটওয়ার্কের অবস্থান

বিভিন্ন স্থানে ছাত্রদলের প্রতীকী অনশন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) অনশনরত শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে গতকাল মঙ্গলবার অবস্থান কর্মসূচি করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) বেশ কয়েকজন শিক্ষক। কর্মসূচি থেকে তাঁরা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে উপাচার্য নির্বাচনের দাবি জানান।

এ ছাড়া শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ন্যায়বিচার, ভিসির অপসারণ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষাবান্ধব পরিবেশ, হলগুলোতে আবাসন সমস্যার সমাধান ও মানসম্মত খাবার পরিবেশনের দাবিতে গতকাল বিভিন্ন স্থানে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপির অঙ্গসংগঠন ছাত্রদল।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিফলকের সামনে গতকাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক নেটওয়ার্কের ব্যানারে অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়।

বিজ্ঞাপন

এতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘শাবিপ্রবিতে ন্যায্য দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর যে হামলা চালানো হয়েছে তা ক্ষমা চাওয়ার অপরাধ নয়, এটা ফৌজদারি অপরাধ। এরপর তাঁর (উপাচার্যের) সেই পদে থাকার নৈতিক অধিকার নেই। ’ তিনি বলেন, দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যরা একটা সিন্ডিকেট তৈরি করেছেন। যার সঙ্গে জড়িত ৩৪ জন উপাচার্য। তাঁরা এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত না চেয়ে উল্টো শাবিপ্রবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দিনকে সমর্থন দিচ্ছেন। ’

রাকসু আন্দোলন মঞ্চের সমন্বয়ক আব্দুল মজিদ অন্তরের সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে আরো বক্তব্য দেন বাংলা বিভাগের শিক্ষক সৌভিক রেজা, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সালেহ হাসান নকীব প্রমুখ। কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে আরো বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি শাকিলা খাতুন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের আহ্বায়ক রিদম শাহরিয়ার, ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর রনজু হাসান প্রমুখ।

শাবিপ্রবির আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে এবং উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে এদিন বরিশাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতীকী অনশন করে জেলা ও মহানগর ছাত্রদল।

রাজবাড়ী ছাত্রদলের আয়োজনে কর্মসূচি পালিত হয় জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে। ছাত্রদল রাজবাড়ীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ কর্মসূচি পালন করতে চেয়েছিল। কিন্তু প্রশাসনের অনুমতি না পাওয়ায় তারা দলীয় কার্যালয়ে কর্মসূচি পালন করে। কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক আরিফুর রহমান রোমান, সদস্যসচিব শাহিনুর রহমান শাহীন, যুগ্ম আহ্বায়ক আরজাদ হোসেদ আজাদ, দেলোয়ার হোসেন, মিজানুর রহমান লিমন, আতিয়ার শিকদার আতিক, মাহফুজ, লিখন, নুর ইসলাম, সদস্য রিপন, জামাল, শরিফ, হাসান, মুক্তার, জামিল, আলমগীর, রহিম, আকাশ, কাইয়ুম, বাঁধন, হীরা, সোহেল, সবুজ, পলাশ, সূর্য, শরীফ, জয় প্রমুখ।

[প্রতিবেদন তৈরিতে তথ্য দিয়েছেন বরিশাল অফিস, রাজবাড়ী ও ঝালকাঠি এবং রাজাপুর (ঝালকাঠি) ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি]



সাতদিনের সেরা