kalerkantho

সোমবার । ১৫ আগস্ট ২০২২ । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৬ মহররম ১৪৪৪

নবাবগঞ্জে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাড়িতে হামলা

বিদ্রোহী প্রার্থীদের মাঠ থেকে বিতাড়নের হুঁশিয়ারি আ. লীগ নেতাদের

দোহার-নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকার নবাবগঞ্জের শিকারীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী (ঘোড়া প্রতীক) আইয়ুব মোল্লার বাড়িতে গত শুক্রবার রাতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর ছেলের নেতৃত্বে হামলার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় আইয়ুব মোল্লার মা ও পরিবারের আরেকজনকে মারধর করা হয়।

এদিকে উপজেলায় দলের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থীদের নির্বাচনী মাঠ থেকে বিতাড়িত করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। গত শনিবার কৈলাইল ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী বশির আহমেদের যৌথ কর্মিসভায় এ হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

৩১ জানুয়ারি ১৪টি ইউপিতে নির্বাচন হবে।

আইয়ুব মোল্লা বলেন, তিনি তাঁর অসুস্থ স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য ঢাকায় ছিলেন। এ সুযোগে বর্তমান চেয়ারম্যান নৌকার প্রার্থী আলীমোর রহমান খান পেয়ারার ছেলে মো. তানভীরের নেতৃত্বে তাদের সমর্থকরা বিষমপুরে আইয়ুবের বাড়িতে ঢুকে আসবাব ও দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। পোস্টারে আগুন দেয়। নির্বাচন থেকে সরে যেতে প্রাণনাশের হুমকিও দেওয়া হয়।

এ ঘটনার পর একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে লণ্ডভণ্ড বাড়ির দৃশ্যসহ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে বিচার চাওয়া হয় পরিবারটি থেকে।

আলীমোর রহমান খান পেয়ারা বলেন, ‘ওই সময় আমার ছেলে আমার সঙ্গেই নির্বাচনী একটি মিটিংয়ে ছিল। সে কী করে তখন তাঁর (আইয়ুব) বাড়িতে গেল? এটা রাজনৈতিক ফায়দা নেওয়ার চেষ্টা মাত্র। ’ অভিযুক্ত তানভীর বলেন, ‘আমি বাবার সঙ্গে মিটিংয়ে ছিলাম। বিষমপুরের ওই পাশে আমি যাইনি। ’ নবাবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বিদ্রোহী প্রার্থীদের হুঁশিয়ারি

কৈলাইল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ নেতারা বিদ্রোহী প্রার্থীদের উদ্দেশে করে বলেন, আমাদের অভিভাবক ঢাকা-১ আসনের সংসদ সদস্য সালমান এফ রহমানসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ আপনাদের অনেক অনুরোধ করেছে, বুঝিয়েছে; আপনারা শুনলেন না। যেসব ইউনিয়নে এখনো বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন, তাঁরা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান। না হলে আপনাদের নির্বাচনী মাঠে থাকতে দেওয়া হবে না। বিতাড়িত করা হবে।



সাতদিনের সেরা