kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

উল্লাপাড়ায় তিন বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা

শাশুড়ি ও পুত্রবধূর চুল কর্তন

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়নের তরফ ভায়ড়া গ্রামে তিনটি বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে। দুর্বৃত্তরা বাড়িগুলোর ঘর-দরজা, আসবাব ভাঙচুরসহ লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগীরা। গতকাল রবিবার এ ঘটনা ঘটে। এতে চারজন আহত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ওই তিন বাড়ির একটি বাড়ির শাশুড়ি ও তাঁর পুত্রবধূর চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে।

স্থানীয় ব্যক্তিরা জানায়, ভায়ড়া গ্রামের জিল্লুর রহমান, বাবলু সরকার ও মো. আলহাজ আলীর বাড়িতে দুর্বৃত্তরা হামলা চালায়।

ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে, আগের শত্রুতার জের ধরে গ্রামের আব্দুল মজিদ সরকারের সাঙ্গোপাঙ্গরা পরিকল্পিতভাবে তাদের ঘরবাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। হামলাকারীরা টাকা, স্বর্ণালংকারসহ কয়েক লাখ টাকার মালপত্র লুট করেছে।

সূত্র জানায়, দুর্বৃত্তরা আলহাজের মা হাসনা খাতুন ভানু (৬০) ও তাঁর স্ত্রী নীলা খাতুনের (৩০) চুল কেটে দিয়ে তাঁদের বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

ভুক্তভোগীরা জানায়, কথিত মজিদ বাহিনীর প্রধান আব্দুল মজিদ এর আগেও গ্রামে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে অনেক পরিবারের ক্ষতি করেছেন। মজিদের বিরুদ্ধে ভায়ড়া গ্রামের বেশ কয়েকটি পরিবারের জমি ও সরকারি খাসজমি দখলেরও অভিযোগ রয়েছে।

গ্রামের সরকারি খেলার মাঠ, রাস্তা দখল করে মজিদ অন্য ব্যক্তিদের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন—এমন অভিযোগও রয়েছে। যাঁরা জায়গা কিনেছেন তাঁরা সেখানে ঘরবাড়ি নির্মাণও করে ফেলেছেন, যার ফলে অনেক বাড়ির লোকজনের বের হওয়ার রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে।

অভিযুক্ত মজিদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানার উপপরিদর্শক আব্দুস সালাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলার শিকার জিল্লুর, বাবলু ও আলহাজ পৃথকভাবে আব্দুল মজিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। দুর্বৃত্তরা পালিয়ে গেছে।



সাতদিনের সেরা