kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

‘সন্তানদের কাছে হেরে যাওয়া আনন্দের’

শাবিপ্রবি উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি
একই দাবিতে ইবিতে বিক্ষোভ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার প্রতিবাদে একক অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষক। গতকাল রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ড. শামসুজ্জোহা চত্বরে কর্মসূচি থেকে তিনি শাবিপ্রবির উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদের পদত্যাগের দাবি জানান। তিনি হলেন রাবির অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক ফরিদ উদ্দিন খান।

একই দিন শাবিপ্রবির উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট।

বিজ্ঞাপন

ফরিদ উদ্দিন খান শাবিপ্রবির উপাচার্যকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘অবিলম্বে পদত্যাগ করুন। সন্তানদের বাঁচান। সন্তানদের কাছে হার মানা কোনো লজ্জার নয়, বরং আনন্দের। আমাদের সন্তানরা আজ প্রতিবাদ করতে শিখেছে। শিক্ষকসমাজকে জাতির কাছে কলঙ্কিত করবেন না, ছোট করবেন না। আপনার শিক্ষকতা জীবনের অর্জনকে হেয় হতে দিবেন না। শিক্ষকদের অধিকার আদায়ে আপনার প্রশংসিত ভূমিকাকে খাটো করবেন না। ’

কর্মসূচির বিষয়ে ফরিদ উদ্দিন খান বলেন, ‘একজন শিক্ষক ও অভিভাবক হিসেবে আমি ভীষণ লজ্জিত ও ব্যথিত। একজন শিক্ষকের কারণে আজ আমাদের সন্তানদের জীবন সংকটাপন্ন। হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের জীবনের চেয়ে শিক্ষাঙ্গনে কোনো পদই বড় হতে পারে না। তাই বিবেকের তাড়নায় দাঁড়ালাম। ’

তিনি আরো বলেন, ‘একজন অভিভাবক যখন দাঙ্গা পুলিশ ডেকে এনে সন্তানদের শায়েস্তা করেন, তখন তিনি আর অভিভাবক থাকেন না, হয়ে যান একজন শাসক। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো শাসক চাই না, চাই অভিভাবক। ’

ইবির ডায়না চত্বর থেকে দুপুরে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেন প্রগতিশীল ছাত্র জোটের নেতাকর্মীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে বক্তারা বলেন, শাবিপ্রবিতে শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে পুলিশের হামলার বিচার ও উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছেন। কিন্তু উপাচার্য পদত্যাগ করছেন না। উপাচার্যকে দ্রুত পদত্যাগ করতে হবে। নয়তো ছাত্রসমাজের এ আন্দোলন দমানো যাবে না। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক পিয়াস ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের নেতা শাহরিয়ার আমিনের নেতৃত্বে ছাত্র জোটের অন্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

[প্রতিবেদনে তথ্য দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা]



সাতদিনের সেরা