kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

মনোনয়ন জমা দিলেও প্রতীক পাননি প্রার্থীরা

মনোহরগঞ্জে ইউপি নির্বাচন

নিজস্ব প্রতিবেদক ও কুমিল্লা সংবাদদাতা   

২২ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চারজন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উচ্চ আদালতের নির্দেশে গত বৃহস্পতিবার তাঁদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তবে আগামী ৩১ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের মাত্র ৯ দিন বাকি থাকলেও গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তাঁরা প্রতীক পাননি।

ষষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল গত ৩ জানুয়ারি। এই চার প্রার্থীর অভিযোগ, তফসিল ঘোষণার পর তাঁরাসহ বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান ও সাধারণ সদস্য প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে ব্যর্থ হন।

বিজ্ঞাপন

এ অবস্থায় তাঁরা জেলা প্রশাসক, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, জেলা পুলিশ সুপার, নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব ও প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে স্মারকলিপি দেন। কিন্তু তাঁরা কোনো প্রতিকার পাননি।  

রিট আবেদনকারী চার প্রার্থী হলেন উপজেলার ঝলম উত্তর ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন, সরসপুরের সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম সরওয়ার মজুমদার ও জসিম উদ্দিন এবং লক্ষ্মণপুরের আবদুল বাতেন। চারজনই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিতে চান। তাঁদের রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মনোনয়নপত্র জমা নিয়ে পরবর্তী কার্যক্রম সম্পন্ন করতে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারদের নির্দেশ দেন।

ওই তিন ইউপিসহ মনোহরগঞ্জ উপজেলার ১১টি ইউপিতে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসাররা গত ১৪ জানুয়ারি ক্ষমতাসীন দলের চেয়ারম্যান প্রার্থীদের একক প্রার্থী হিসেবে বিনা ভোটে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেছেন। এর মধ্যে ৩ জানুয়ারি মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে একক প্রার্থী হিসেবে সাত প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত হয়ে যায়। আর বাকি চার ইউপিতে একাধিক প্রার্থী থাকলেও ১৩ জানুয়ারি মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে নৌকার প্রার্থী ছাড়া অন্যরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন।

কুমিল্লার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মঞ্জুরুল আলম বলেন, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী তাঁরা গত বৃহস্পতিবার চার চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্র নিয়েছেন। তাঁরা বিষয়টি ইসিকে জানিয়েছেন।



সাতদিনের সেরা