kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

১৪ মামলার আসামিও সদস্য প্রার্থী

ষোলনল ইউপি নির্বাচন

আবদুর রহমান, কুমিল্লা   

২২ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



১৪ মামলার আসামিও সদস্য প্রার্থী

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ষোলনল গ্রামে মোহাম্মদ সোলেমানের আলিশান বাড়ি। ইনসেটে মোহাম্মদ সোলেমান। ছবি : কালের কণ্ঠ

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ষোলনল ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) পদে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী। এঁদের একজন মোহাম্মদ সোলেমান (৩৪)। তাঁর প্রার্থী হওয়ার কথা শুনে এলাকার মানুষ হতবাক হয়েছেন। কারণ ১৪ মামলার আসামি সোলেমান গত ১১ জানুয়ারি জামিনে বেরিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি সপ্তম ধাপে এখানে ভোট।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ১১ এপ্রিল কুমিল্লা সদরে খুন হন জামবাড়ীর বাসিন্দা পত্রিকা বিক্রেতা ফারুক হোসেন। তাঁর পরিবার কোতোয়ালি থানায় মামলা করে। ওই মামলার প্রধান আসামি সোলেমান। ২০১৮ সালের ১৫ মে বুড়িচংয়ের ভরাসার বাজারে রিপনকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা চালান সোলেমান। ১০ নভেম্বর সোলেমানের একটি মাদকের চালান আটক করে কোতোয়ালি থানার পুলিশ। ২০১৯ সালের ৬ জুন ষোলনলে চাঁদার জন্য মুন্নির বাড়িতে হামলা চালান সোলেমান। ২০১৯ সালের ১৭ জুন সোলেমানের বিরুদ্ধে মামলা করে বাখরাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ। অবৈধ সংযোগ দিয়ে অন্তত তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ করা হয়। ২০১৯ সালের ২২ নভেম্বর বাবুলকে চাঁদার জন্য হত্যার চেষ্টা করেন। গত বছর রমিজের কাছে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন।

সম্প্রতি ষোলনল গ্রামে গিয়ে জানা যায়, গত ২৩ ডিসেম্বর মো. আবু তাহেরের মেয়ের বিয়ের খবর পেয়ে সোলেমান দুই লাখ টাকা চাঁদা চান। বিয়ের দিন বরযাত্রী এগিয়ে আনতে যান মেয়ের ভাই গিয়াস উদ্দিন। টাকা না পেয়ে তাঁর ওপর হামলা চালান সোলেমান। এ ঘটনায় ২৫ ডিসেম্বর থানায় মামলা করা হয়। ওই মামলায় গত ২৯ ডিসেম্বর কারাগারে যান সোলেমান।

গিয়াস উদ্দিন বলেন, ‘এর আগেও সোলেমান ও তার বাহিনীর লোকজন চাঁদার জন্য আমার বাড়িতে হামলা করেছে। বাড়িঘর ভাঙচুর করেছে, আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে। ওই ঘটনায়ও মামলা করেছিলাম। ’

বর্তমান ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘গত বছরের ১৪ আগস্ট সোলেমান আমার কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা চায়। টাকা না দেওয়ায় আমাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় মামলা করেছি, পুলিশ তাকে গ্রেপ্তারও করে। জামিনে বের হয়ে এসে আবার সে অপরাধ শুরু করে। ’

ষোলনল ইউপির চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম সিরাজ বলেন, ‘সোলেমান সন্ত্রাসী, ডাকাত, মাদকসম্রাট। তার বাহিনীর লোকেরা মানুষের ওপর প্রতিনিয়ত অত্যাচার-নির্যাতন করে। ’

ইউনিয়নের বাসিন্দা মিলন মিয়া বলেন, ‘কোথাও কোনো নতুন ভবন করতে হলে সোলেমানকে চাঁদা দিতে হয়। কেউ জমি বেচলেও চাঁদা দিতে হয়। ’

অভিযুক্ত মোহাম্মদ সোলেমান বলেন, ‘সব মামলা রাজনৈতিক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আমি নির্বাচন করব, এ জন্য মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে। ’

এ বিষয়ে সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) কুমিল্লার সভাপতি বদরুল হুদা জেনু বলেন, ‘বিষয়টি দুঃখজনক। এতগুলো মামলার আসামি একজন সন্ত্রাসী যদি নির্বাচিত হয়ে যায়, তাহলে সমাজে অপরাধ আরো বেড়ে যাবে। ’

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘কারো বিরুদ্ধে একাধিক মামলা থাকলে, এমনকি দুই বছরের নিচে সাজাপ্রাপ্ত হলেও নির্বাচনে অংশ নিতে আইনগত বাধা নেই। এ জন্য ওই প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। ’

বুড়িচং থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ‘সোলেমানের বিরুদ্ধে যখনই অভিযোগ এসেছে, আমরা তখনই তাঁকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছি। ’



সাতদিনের সেরা