kalerkantho

বুধবার ।  ২৫ মে ২০২২ । ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩  

সরেজমিন : বন্দর থানা

কেন্দ্রে দেখা যায়নি তৈমূর সমর্থকদের

হাসান শিপলু, নারায়ণগঞ্জ থেকে   

১৭ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শান্তিপূর্ণ ভোটের পরিবেশে ছিল ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। অনেক দিন পর ভোটের এমন পরিবেশ পেয়ে ভোটারদের বেশ উজ্জীবিত দেখা গেছে। ভোটকেন্দ্রের বাইরে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াত আইভীর সমর্থকদের বেশ সক্রিয় দেখা গেছে। উল্টোচিত্র তৈমূর আলম খন্দকারের শিবিরের।

বিজ্ঞাপন

হাতি প্রতীকের কর্মী-সমর্থকদের তেমন দেখা যায়নি।

গতকাল রবিবার নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বন্দর থানার বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

দুপুরের আগেই কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। নির্বাচন ঘিরে নানা শঙ্কার কথা শোনা গেলেও বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। কেন্দ্রের ভেতরে-বাইরে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীও বেশ তৎপর ছিল।

আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে যাঁরা কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন, তাঁদের কিছুটা প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা ছিল। তবে মেয়র পদে প্রধান দুই প্রার্থীর নেতা-কর্মীদের তেমন তৎপরতা দেখা যায়নি।

তবে উৎসবের মাঠে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট দিতে গিয়ে কিছুটা ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। নতুন পদ্ধতিতে ভোটারদের ধারণা না থাকায় ভোট প্রয়োগে সময় লেগেছে বেশি। কারো কারো আঙুলের ছাপ না মেলায় কয়েকবার চেষ্টা করা হয়েছে। প্রতি কেন্দ্রেই কিছু ভোটার পাওয়া গেছে, যাঁরা আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট দিতে পারেননি।

সকাল ৯টা ৪২ মিনিটে বন্দর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে গিয়ে দেখা যায়, ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। নারী ভোটারদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মতো। প্রথম দুই ঘণ্টায় ওই কেন্দ্রে ভোট পড়েছে মাত্র ২২টি। কেন্দ্রের সব কক্ষেই আইভী ও তৈমূরের এজেন্ট ছিলেন।

কেন্দ্রের সামনে ঘুড়ি প্রতীকের প্রার্থী বন্দর থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ খানের নেতাকর্মীদের ছিল ব্যাপক উপস্থিতি। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ঝুড়ি প্রতীকের প্রার্থী মহিলা লীগ নেত্রী ইসরাত জাহান খান অভিযোগ করেন, মাসুদ খান ভোটারদের টাকা দিচ্ছেন। ভোটারদের জোর করে ব্যাজ পরিয়ে দিচ্ছেন। তবে মাসুদ খান অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।



সাতদিনের সেরা