kalerkantho

শুক্রবার । ৭ অক্টোবর ২০২২ । ২২ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

দ্বিজেন শর্মা নিসর্গ পুরস্কার পেল পাঁচ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান

বন ও পরিবেশ সংরক্ষণে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখায় সম্মাননা পেয়েছে রাঙামাটির সারোয়াতলী সংরক্ষিত বনাঞ্চল কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বন পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় পাঁচ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সিটি ব্যাংক-তরুপল্লব দ্বিজেন শর্মা নিসর্গ পুরস্কার-২০২১ দেওয়া হয়েছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

বন ও পরিবেশ সংরক্ষণে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখায় সম্মাননা পেয়েছে রাঙামাটির সারোয়াতলী সংরক্ষিত বনাঞ্চল কমিটি। জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য পুরস্কার পেয়েছেন ইনাম আল হক।

বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া গাছের প্রতি অন্তিম ভালোবাসা রাখায় বৃক্ষসখা সম্মাননা পেয়েছেন তিনজন। তাঁরা হলেন—শাহজাহান মৃধা বেনু, রাজিয়া সামাদ ডালিয়া ও সালমা বিনতে নূর।

সারোয়াতলী সংরক্ষিত বনাঞ্চল কমিটির সভাপতি যতীন রায় চাকমা কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বন না থাকলে আমরা বাঁচতে পারব না। বন উজাড় হয়ে গেলে প্রাণীরা থাকার জায়গা পাবে না। তিন পার্বত্য জেলায় বন কমতে শুরু করলে আমরা প্রাণীদের কষ্ট দেখেছি। পরে ১৯৯৬ সালে আমরা এই কমিটি গঠন করে বন সংরক্ষণে কাজ শুরু করি। এ সম্মাননা নিশ্চয়ই অনেক বড় প্রাপ্তি। ’

জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য পুরস্কার পাওয়া ইনাম আল হক বলেন, ‘সম্মাননা কেউ একজন পাবেন এটাই স্বাভাবিক। আমার ধারণা, সম্মাননা পাওয়ার জন্য কেউ এই কাজ করেন না। তবে আজকের এই সম্মাননা দেওয়ার মধ্য দিয়ে এটা প্রমাণ হলো যে, এই কাজটি সম্মানের। ’

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেন, ‘আমাদের বন প্রকৃতি উজাড় হয়ে যাচ্ছে। জলবায়ুর বিরূপ প্রভাব পড়ছে। যাঁরা এখনো বন ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে কাজ করছেন আজকের এই সম্মাননা তাঁদের আরো উদ্বুদ্ধ করবে। ’

বিশেষ অতিথি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ইমেরিটাস ড. আইনুন নিশাত বলেন, ‘আমাদের বন পরিবেশ আজ হুমকির মুখে। একেক জায়গায় পরিবেশের চরিত্র একেক রকম। একেক অঞ্চলের পানির স্বাদ একেক রকম হয়ে গেছে। কোথাও পানিতে লবণাক্ততা আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। এখনই যদি পরিবেশের ভারসাম্য ঠিক রাখতে উদ্যোগী না হওয়া যায় তাহলে সামনের অবস্থা আরো খারাপ হবে। ’

২০১৮ সাল থেকে সিটি ব্যাংক-তরুপল্লব দ্বিজেন শর্মা নিসর্গ পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়।

তরুপল্লবের সভাপতি সেলিনা হোসেনের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাসটেইনেবল ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টের মহাব্যবস্থাপক খন্দকার মোরশেদ মিল্লাত।



সাতদিনের সেরা