kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ মাঘ ১৪২৮। ২০ জানুয়ারি ২০২২। ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

এক বাঘাইড় এক লাখ ২০ হাজার টাকায় বিক্রি

শ্রীমঙ্গলে মেলা

সিলেট অফিস   

১৫ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এক বাঘাইড় এক লাখ ২০ হাজার টাকায় বিক্রি

পৌষসংক্রান্তি উপলক্ষে গতকাল সিলেটের শ্রীমঙ্গল শহরের নতুন বাজারে বড় মাছের মেলায় তোলা হয় ৭৫ ও ৪৫ কেজি ওজনের এই বাঘাইড় মাছ দুটি। ছবি : কালের কণ্ঠ

পৌষসংক্রান্তিতে বড় মাছের মেলা বসে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে। উৎসবকে ঘিরে মাছ বিক্রেতারাও বড় আকারের মাছ সংগ্রহের চেষ্টায় থাকেন। এবার ৭৫ কেজি ও ৪৫ কেজির দুটি বাঘাইড় মাছ তুলে চমক দেখিয়েছেন তাঁরা। মাছ দুটি যথাক্রমে এক লাখ ২০ হাজার ও ৫২ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। ভৈরবে মেঘনা নদী থেকে জেলেরা মাছ দুটি ধরেন।

পৌষসংক্রান্তি উপলক্ষে গত বৃহস্পতিবার শ্রীমঙ্গল শহরের নতুন বাজারে বিভিন্ন জাতের ও আকারের মাছ তোলেন বিক্রেতারা। স্থানীয় লালবাগ এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী হাফিজ আহমেদ ও তাঁর খালাতো ভাই মনসুর আলী দুটি বড় বাঘাইড় মাছ বাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন। দুটি মাছের একটি ৭৫ কেজি এবং অন্যটি ৪৫ কেজি ওজনের। মাছ দুটির জন্য তাঁরা যথাক্রমে এক লাখ ২০ হাজার এবং এক লাখ ২০ হাজার টাকা দাম হাঁকেন। সারা দিন প্রচুর দর্শনার্থী মাছ দুটি দেখতে ভিড় জমায়। চলে দামদরও। পরে রাতে দুটি মাছই বিক্রি হয়।

বিক্রেতা হাফিজ আহমদ বলেন, ‘মাছটি ভৈরবে মেঘনা নদীতে ধরা পড়েছে। আমরা সেটি কিনে এনেছি এখানে বিক্রির জন্য।’ কত টাকায় বিক্রি হয়েছে মাছ দুটি—এই প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘৭৫ কেজি ওজনেরটি এক লাখ ২০ হাজার টাকায় কিনে নিয়েছেন একজন ক্রেতা। তবে ৪৫ কেজির মাছটি একক ক্রেতা না পাওয়ায় কেটে কেজি দরে বিক্রি করেছি। এতে ৫২ হাজার টাকার মতো পেয়েছি।’ বড় মাছটি কে কিনেছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যিনি কিনেছেন তিনি নিজের নাম জানাতে চান না। তাই বলতে পারব না।’

শ্রীমঙ্গল ব্যবসায়ী সমিতির কার্যকর সদস্য অজয় সিং বলেন, ‘পৌষসংক্রান্তি উপলক্ষে মেলায় বড় বড় মাছ আনা হয়েছে। একসঙ্গে এত সংখ্যক বড় মাছ সাধারণত বছরের অন্য সময়ে বাজারে চোখে পড়ে না।’



সাতদিনের সেরা