kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ১৯ মে ২০২২ । ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩  

ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রী

সব বাধা ডিঙানোর প্রমাণ পদ্মা সেতু

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সব বাধা ডিঙানোর প্রমাণ পদ্মা সেতু

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল গণভবন থেকে ভিডিও কনফান্সে। ছবি : পিআইডি

নীতি এবং আদর্শ নিয়ে চললে সকল বাধা যে অতিক্রম করা যায়, পদ্মা সেতু নির্মাণ করে আওয়ামী লীগ সরকার তার প্রমাণ দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বিশ্ব ব্যাংকের দুর্নীতির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের একটি ঘোষণা সমগ্র বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আমূল বদলে দিয়েছে। এই অর্জনকে ধরে রাখার আহ্বান জানান তিনি।

গতকাল বুধবার দুপুরে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজধানীর খামারবাড়ির বাংলাদেশ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ছাত্রলীগের মূল অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন।

প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগ নেতাদের উদ্দেশে বলেন, মানুষের জন্য কাজ করাই ছাত্রলীগের মূল দায়িত্ব। এটাই রাজনৈতিক নেতাদের কাজ এবং তা ছাত্রলীগকে মনে রাখতে হবে।

ছাত্রলীগকে কোনোভাবেই বিভ্রান্তির পথে না গিয়ে পাঠে মনোনিবেশ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তোমাদের উদ্ভাবনী শক্তিকে কাজে লাগিয়ে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সঙ্গে তাল মেলাতে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে এখন থেকেই নিজেদের গড়ে তুলতে হবে। আজকে আমরা উন্নয়নশীল দেশ, সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেই আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। ’

জাতির পিতার বলে যাওয়া কথা ‘মহান অর্জনের জন্য মহান আত্মত্যাগ দরকার’ সে কথা ছাত্রলীগকে স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, কাজেই আমাদের ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে মনে রাখতে হবে, তারা কেউ যেন বিভ্রান্ত না হয়। সন্ত্রাস এবং জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত না হয়। দুর্নীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত না হয়। নিজেদের এসবের ঊর্ধ্বে রেখে দেশ যেন শান্তির পথে, উন্নয়নের পথে এগিয়ে যেতে পারে সেদিকে বিশেষভাবে নজর দিতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, ’৪১ সাল নাগাদ এই বাংলাদেশ বিশ্বে একটা উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বুলেট, বোমা অনেক কিছুই তো মোকাবেলা করেছি। সেই চিন্তা করি না, কিন্তু দেশটাকে যেখানে নিয়ে এলাম সেই গতিটা যেন অব্যাহত থাকে। আবার যেন আমাদের পিছিয়ে যেতে না হয়। ’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘সজাগ থাকতে হবে, যাতে আবার কোনো হায়েনার দল এসে এ দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে না পারে। এ দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে কাউকে ছিনিমিনি খেলতে দেওয়া যাবে না। ’ সূত্র : বাসস



সাতদিনের সেরা