kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

পরিস্থিতির উন্নতি না হলে পরিবহন বন্ধের ঘোষণা

গাজীপুর যানজটের নিরসন চায় ময়মনসিংহবাসী

নিয়ামুল কবীর সজল, ময়মনসিংহ   

৪ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বছরের পর বছর ধরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুর-টঙ্গী অংশে ভোগান্তির শিকার হয়ে ক্ষুব্ধ বৃহত্তর ময়মনসিংহবাসী। মহাসড়কের ওই অংশটুকু বৃহত্তর ময়মনসিংহবাসীর কাছে এখন অভিশাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আড়াই ঘণ্টার স্বাভাবিক যাত্রাপথে এখন সময় লাগছে কমপক্ষে চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা। এতে যাত্রীদের যেমন কর্মঘণ্টা অপচয় হচ্ছে, তেমনি পরিবহন মালিকরাও আর্থিকভাবে লোকসানে পড়ছেন।

বিজ্ঞাপন

আর তাই জনদুর্ভোগ নিরসনে অবিলম্বে দৃশ্যমান উদ্যোগ গ্রহণের দাবি জানিয়েছে ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ও জেলা মোটর মালিক সমিতি। মোটর মালিক সমিতি জানিয়েছে, আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে গাজীপুর যানজট পরিস্থিতির উন্নতি না হলে তারা ঢাকামুখী পরিবহন বন্ধ করে দেবে। টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জসহ বৃহত্তর ময়মনসিংহের সব জেলার পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা এই উদ্যোগে যুক্ত হবেন।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, আজ থেকে ১০-১৫ বছর আগেও ময়মনসিংহ থেকে মাত্র দুই থেকে আড়াই ঘণ্টায় যাত্রীরা ঢাকায় চলে যেত। দিনের কাজ সেরে অনেকেই আবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহে ফিরতে পারত। এটি এখন রীতিমতো ইতিহাসের গল্পে পরিণত হয়েছে। বর্তমানে স্বাভাবিক দিনেও চার-পাঁচ ঘণ্টা সময় লাগে ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় যেতে। কখনো কখনো পাঁচ-ছয় ঘণ্টাও লেগে যায়। ঈদ বা বিশেষ দিবসে সরকারি ছুটির দিনে সময় লাগে সাত-আট ঘণ্টা। সব কিছু মিলিয়ে এক অসহ্য পরিস্থিতির শিকার হচ্ছে ময়মনসিংহ অঞ্চলের যাত্রীরা। এমন দুর্ভোগ আর কত দিন—এ নিয়ে আলোচনা চলে ময়মনসিংহ অঞ্চলের সরকারি-বেসরকারি সব মহলে।

 



সাতদিনের সেরা