kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের দ্বন্দ্বে

এসেই হল ছাড়তে হলো আনন্দ মোহন কলেজ শিক্ষার্থীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ   

৬ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজ ছাত্রলীগ কার নিয়ন্ত্রণে থাকবে—এ নিয়ে জেলা ছাত্রলীগ ও মহানগর ছাত্রলীগের মধ্যে অনেক দিন ধরেই স্নায়ুর লড়াই চলছিল। সেই লড়াই প্রকাশ্যে আসে গত শনিবার। এদিন দুপুরে কলেজ ক্যাম্পাসে দুই পক্ষ মুখোমুখি হয়। বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতেই কলেজ কর্তৃপক্ষ হলগুলো বন্ধ করার নির্দেশ দেয়।

বিজ্ঞাপন

কর্তৃপক্ষ জানায়, কলেজে গতকাল রবিবারও উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষা ছিল। তাই যেকোনো অঘটন ঘটলে পরীক্ষার্থীরা এই বিরোধপূর্ণ পরিস্থিতির শিকার হতে পারে। পরীক্ষা নেওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে। তাই আপাতত হল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলেই হলগুলো খুলে দেওয়া হবে।

এদিকে গতকাল সকালে কলেজে গিয়ে দেখা যায়, ঘটনায় ক্ষুব্ধ ও হতাশ ছাত্র-ছাত্রীরা হল ছাড়ছে। অন্যদিকে হল খুলে দেওয়ার দাবিতে জেলা ছাত্রলীগের কর্মী-সমর্থকরা কলেজের বাইরে মিছিল করে। কলেজ এলাকায় বিচ্ছিন্নভাবে দুই পক্ষই অবস্থান নিয়ে আছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কলেজের ভেতর ও বাইরে পুলিশ প্রহরা রয়েছে। কোতোয়ালি থানার ওসি শাহ কামাল বলেছেন, পুলিশ পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে। তবে হঠাৎ করে ছাত্রলীগের এমন বিরোধ এবং আনন্দ মোহন কলেজের হল বন্ধ হওয়ার বিষয়ে পুরো শহরেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো থেকে জানা যায়, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ জানিয়ে দেয়, আনন্দ মোহন কলেজ ছাত্রলীগ শাখা জেলা কমিটির অধীনে থাকবে। জেলা ছাত্রলীগ এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও নাখোশ হয় মহানগর ছাত্রলীগ। তাদের যুক্তি, কলেজটি যেহেতু মহানগরের ভেতরে অবস্থিত, তাই কলেজ ছাত্রলীগের কমিটিও মহানগর কমিটির অধীনে থাকবে।



সাতদিনের সেরা