kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

দুই শিশুকন্যাকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

♦ গাজীপুর শহরের নেয়ামত সড়কের মোক্তারটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে
♦ স্বামী বললেন স্ত্রীর মানসিক সমস্যা ছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরে একটি ফ্ল্যাটে দুই শিশুকে হত্যার পর নিজে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন মা। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে শহরের নেয়ামত সড়কের মোক্তারটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রাত ৯টার দিকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। আহত মা লিজা বেগমকে (২৫) শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

নিহত দুই শিশু তাসনিহা জাহান তারিহা (৪) ও তাসমিম জাহান বুশরা (সাত মাস) কুমিল্লার দেবীদ্বার থানার বড় আলমপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের (৩৫) মেয়ে। বিল্লাল মোক্তারটেক এলাকার সামসুল হকের বাড়ির দোতলার ফ্ল্যাটে ভাড়া থেকে ভবন নির্মাণের সয়েল টেস্ট মিস্ত্রির কাজ করতেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (অপরাধ) জাকির হাসান জানান, তিন মাস আগে সামসুল হকের বাড়িতে পরিবার নিয়ে ওঠেন বিল্লাল হোসেন। প্রথমে একাই থাকতেন। দুই দিন আগে গ্রামের বাড়ি থেকে স্ত্রী ও দুই শিশুসন্তানকে নিয়ে আসেন। গতকাল সন্ধ্যার পর বিল্লাল শিশুদের জন্য খাবার আনতে দোকানে যান। এই ফাঁকে স্ত্রী ঘরের দরজা বন্ধ করে তাঁর দুই শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যার পর নিজে ফ্যানের সঙ্গে ঝুঁলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। খাবার নিয়ে ফিরে দেখেন ঘরের তালা ভেতর থেকে বন্ধ।   ডাকাডাকির পরও কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে বাড়িওয়ালা ও আশপাশের লোকদের ডেকে আনেন তিনি। তাঁরা জানালা দিয়ে দেখতে পান দুই বাচ্চা বিছানায় পড়ে আছে। মা গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা করছেন। পরে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে ওড়না কেটে স্ত্রী লিজাকে উদ্ধার করা হয়। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

স্বামী বিল্লাল হোসেন জানান, স্ত্রী লিজা বেগমের মানসিক সমস্যা ছিল। তাঁকে বেশ কয়েকবার ডাক্তার দেখানো হয়েছে।



সাতদিনের সেরা