kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ মাঘ ১৪২৮। ২৫ জানুয়ারি ২০২২। ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নির্যাতনের অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে গৃহবধূর মামলা

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি   

১ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর ডেমরায় সোনালী খাতুন নামের এক গৃহবধূ স্বামীর হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। সোনালীর অভিযোগ, তাঁকে মারধর ও গরম খুন্তি দিয়ে ছ্যাঁকা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার সোনালী স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

সোনালীর স্বামী ডেমরার পূর্বপাড়ার আব্দুস সোবহানের ছেলে।

বিজ্ঞাপন

তাঁর নাম আবুল হোসেন। সোনালীর মামলায় আবুল হোসেনের সহযোগী লালন নামের ব্যক্তিকেও আসামি করা হয়। ডেমরার কোনাপাড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই এস এম এনামুল হক জানান, আসামিরা পলাতক রয়েছেন।

ডেমরা থানার ওসি খন্দকার নাসির উদ্দিন কালের কণ্ঠকে বলেন, প্রথম স্ত্রীর কথা গোপন রেখে আবুল হোসেন চার বছর আগে নাটোরের সোনালীকে বিয়ে করেন। প্রথম স্ত্রীর কথা জেনে সোনালী ১১ মাস আগে তাঁকে তালাক দিয়ে নাটোরে চলে যান। এদিকে গত মে মাসে সোনালীকে  ফুসলে আবারও বিয়ে করেন আবুল। তাঁরা কোনাপাড়া বাইতুল্লাহ মসজিদের গলির সিরাজুলের বাড়িতে ভাড়া বাসায় থাকতেন। কিন্তু সোনালীকে ভরণ-পোষণের অর্থ দিতে টালবাহানা করতে থাকেন আবুল। এর প্রতিবাদ করলে সোনালীর ওপর নির্যাতন চালাতে থাকেন।

ওসি আরো জানান, গত ২৩ নভেম্বর আবুল হোসেন ও লালন নামের ওই ব্যক্তি সোনালীর বাসায় গিয়ে আবুলকে তালাক দেওয়ার জন্য বলেন। এই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মারধর ও গরম খুন্তি দিয়ে নির্যাতন করেন তাঁরা। পরে ওই বাড়িওয়ালার স্ত্রী ও প্রতিবেশীরা তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন। কিন্তু হাসপাতালে ভর্তি হতে না পেরে বাসায় ফিরে আসেন। পরে আবুলের স্বজনরা আবারও সোনালীকে মারধর করেন।



সাতদিনের সেরা