kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ছাত্রলীগ-বিএনপি সংঘর্ষ ভাঙচুর, লুটপাট

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৩০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ছাত্রলীগ-বিএনপি সংঘর্ষ ভাঙচুর, লুটপাট

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে গতকাল সোমবার ছাত্রলীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে  অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষের সময় বিএনপি নেতার একটি মার্কেটসহ বাড়ি ভাঙচুর করা হয়। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ফাঁকা গুলি ছোড়ে।

এ ঘটনায় বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন অনুকে প্রধান আসামি করে গতকাল সোমবার থানায় একটি মামলা করেছেন ছাত্রলীগ নেতা ইমতিয়াজ হোসেন শাওন। পুলিশ বিএনপির তিন নেতাকর্মীকে আটক করেছে।

আড়াইহাজার বাজার এলাকার বাসিন্দা বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন অনু অভিযোগ করে বলেন, তাঁর ছোট ভাই রফিকুল ইসলাম তাঁর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান দেখাশোনা করেন। রফিকুলকে সকালে সোনালী ব্যাংক আড়াইহাজার শাখায় সাত লাখ টাকা জমা দিতে পাঠান তিনি। পথে ছাত্রলীগ নেতা ইমতিয়াজ হোসেন শাওনের নেতৃত্বে পাঁচ-ছয়জন আগ্নেয়াস্ত্র ও ধারালো অস্ত্রের মুখে রফিকুলকে জিম্মি করে ও বেধড়ক মারধর করে ওই টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় রফিকুলকে বাঁচাতে পূর্বপরিচিত শিকদার আলী এগিয়ে এলে তাঁকেও মারধর করা হয়। রফিকুলকে প্রথমে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। রফিকুলকে মারধরের প্রতিবাদে আনোয়ার হোসেন অনু ও তাঁর স্ত্রী মহিলা দল ঢাকা বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক পারভীন আক্তারের নেতৃত্বে আড়াইহাজার বাজারে বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি নেতাকর্মীরা। এ সময় শাওনের নেতৃত্বে মিছিলে হামলা চালানো হয়। হামলাকারীরা পারভীন আক্তার, ওয়াসিম মিয়া, হামিদা বেগম, রফিক মিয়া, শিরিনা বেগম, মিলি বেগম ও ইতি আক্তারসহ বেশ কয়েকজনকে পিটিয়ে আহত করে। পরে তারা বাজারে বিএনপি নেতার আশিক সুপার মার্কেটে ও বাড়িতেও আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। তারা এলোপাতাড়ি গুলি ও ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়ে দোকানপাট, বাড়ি ভাঙচুর করে বিপুল পরিমাণ মালপত্র লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় পুলিশ এসে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের তাড়ানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে গুলি ছোড়ে। পরে কয়েকজন বিএনপি নেতাকর্মীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়। হামলায় আহত পারভীন আক্তারসহ বেশ কয়েকজনকে হাসপাতালে  ভর্তি করা হয়েছে।

ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইমতিয়াজ হোসেন শাওন অভিযোগ করে বলেন, আড়াইহাজার শহীদ মিনারসংলগ্ন রাস্তায় তাঁর ওপর রফিকুল ইসলাম রফিকসহ বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এ ঘটনায় রাতে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা উপজেলা আওয়ামী লীগের অফিস থেকে মিছিল বের করে। মিছিল পায়রা চত্বরে যাওয়ার সময় ডাকবাংলোর সামনে এর ওপর বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন অনুর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী গুলি চালায় ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে তাঁদের কয়েকজন নেতাকর্মী মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে।



সাতদিনের সেরা