kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

বিলের মধ্যে সুপেয় পানির নলকূপ

বোয়ালখালীতে অর্ধলক্ষ টাকা ব্যয়ে স্থাপিত গভীর নলকূপ

বোয়ালখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৩০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিলের মধ্যে সুপেয় পানির নলকূপ

পোপাদিয়ার আকুবদণ্ডীতে বিলের মধ্যে নলকূপ। ছবি : কালের কণ্ঠ

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে অর্ধলক্ষ টাকা ব্যয়ে জনশূন্য বিলের মধ্যে স্থাপন করা হয়েছে সুপেয় পানির গভীর নলকূপ। ফলে নলকূপটি কোনো কাজে আসছে না এলাকাবাসীর। অন্যদিকে দীর্ঘদিন ধরে অযত্নে-অবহেলায় পড়ে থাকায় নলকূপটি নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার পোপাদিয়া ইউনিয়নের আকুবদণ্ডী এলাকায় জনশূন্য বিলের মধ্যে গভীর নলকূপটি দাঁড়িয়ে আছে।

বিজ্ঞাপন

এর চারপাশ কচুরিপানায় ঘেরা। সেখান দিয়ে কোনো মানুষ সচরাচর যাতায়াতও করে না। ফলে এলাকাবাসীর বিশুদ্ধ পানির সংকট মেটাতে সরকারের দেওয়া এই নলকূপটি কোনো কাজে আসছে না।

স্থানীয়রা জানায়, জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে ২০২০ সালের প্রথম দিকে নলকূপটি বসানো হয়। স্থানীয় ব্যবসায়ী ওমর ফারুক জনপ্রতিনিধিদের ম্যানেজ করে ব্যক্তিগত স্বার্থে এ নলকূপটি বসিয়েছেন। ওমর ফারুক স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় এ কাজের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করতেও সাহস পায়নি।

উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, শুকনো মৌসুমে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নেমে যাওয়ায় তীব্র খাবার পানির সংকট দেখা দেয় বোয়ালখালীতে। এ সময় অকেজো হয়ে পড়ে এলাকার টিউবওয়েলগুলো। ফলে পানীয় জলের সংকট দূর করতে সরকারিভাবে দেওয়া হচ্ছে গভীর নলকূপ। চলতি বছরে বোয়ালখালীতে বসানো হয় ২৩৪টি নলকূপ। গত বছরও প্রায় সমানসংখ্যক নলকূপ স্থাপন করা হয়। এর মধ্যে আকুবদণ্ডী এলাকার নলকূপটি বসাতে খরচ হয়েছে প্রায় ৫৩ হাজার টাকা।

স্থানীয় ব্যবসায়ী সৈয়দ মোহাম্মদ নুরুল মোস্তফা বলেন, বিশুদ্ধ পানির সংকট মেটাতে সরকারিভাবে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গভীর নলকূপ বসানো হলেও নানা অনিয়মের কারণে এর সুফল ভোগ করতে পারে না সাধারণ জনগণ। তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন, প্রভাব খাটিয়ে ব্যক্তিমালিকানাধীন জায়গায় ও আবদ্ধ ঘরে এসব নলকূপ বসানোর ফলে এর সুফল থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী ওমর ফারুকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাঁর মোবাইল ফোনের সংযোগ পাওয়া যায়নি।

তবে পোপাদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এস এম জসিম বলেন, ‘এলাকার জনগণের স্বার্থে ওমর ফারুকের জায়গায় নলকূপটি বসানো হয়েছে। এতে কারো কোনো ব্যক্তিগত স্বার্থ নেই। ’



সাতদিনের সেরা