kalerkantho

শনিবার । ১৫ মাঘ ১৪২৮। ২৯ জানুয়ারি ২০২২। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

রক্ত শুষে নেওয়ার হুমকি বিএনপি নেতার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৮ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার সুরমা ইউপিতে গত ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ায় সিরিঞ্জ লাগিয়ে আওয়ামী লীগের কর্মীদের রক্ত শুষে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন পরাজিত প্রার্থী বিএনপি নেতা হারুন অর রশিদ। গত শুক্রবার রাতে দোয়ারাবাজার থানায় করা সাধারণ ডায়েরিতে (জিডি) এই অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগ কর্মীরা। হারুন জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রকৌশলী আব্দুল হালিম বীরপ্রতীক জয়ী হন।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, নির্বাচনে আব্দুল হালিমের পক্ষে কাজ করেন ইউনিয়নের মামুনপুর গ্রামের বদরুল ইসলাম, মিরপুর গ্রামের রফিক মিয়া ও জুয়েল মিয়া। এ কারণে তাঁরা হারুন অর রশিদের রোষানলে আছেন। জিডিতে উল্লেখ করা হয়, সুরমার খাগুরা গ্রামের বাসিন্দা হারুন অর রশীদ তাঁর ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন থেকে শুক্রবার সকালে বদরুল ইসলামকে ফোন করে গত নির্বাচনে কেন তাঁরা নৌকার প্রচার চালিয়েছেন এবং ভোট দিয়েছেন জানতে চান। যাঁরা নৌকায় ভোট চেয়েছেন, ভোট দিয়েছেন তাঁদের কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে তিনি তাঁদের বেঁধে নির্বাচনী ব্যয় উদ্ধারসহ সিরিঞ্জ লাগিয়ে রক্ত শুষে নেওয়ার হুমকি দেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত হারুন অর রশিদের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

বদরুল ইসলাম বলেন, ‘হারুন অর রশিদ অকথ্য ভাষায় গালাগালও করেছেন। আমরা তাঁর ভয়ে আছি। ’

আব্দুল হালিম বলেন, ‘আমার কর্মীরা আতঙ্কে আছে। আমি পুলিশসহ স্থানীয় এমপি মুহিবুর রহমান মানিককে বিষয়টি অবগত করেছি। ’

দোয়ারাবাজার থানার ওসি দেবদুলাল ধর বলেন, ‘জিডির তদন্ত চলছে। আমরা সত্যতা পেলে আইনি ব্যবস্থা নেব। ’



সাতদিনের সেরা