kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

কুমিল্লায় আরো দুজন গ্রেপ্তার

খুন হওয়ার আগে সন্ত্রাসীদের তালিকা দেন সোহেল

কুমিল্লা সংবাদদাতা   

২৮ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



খুন হওয়ার আগে সন্ত্রাসীদের তালিকা দেন সোহেল

সৈয়দ মো. সোহেল

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেল খুন হওয়ার আগে সন্ত্রাসীদের একটি তালিকা আওয়ামী লীগ নেতাদের দিয়েছিলেন। এরপর তিনি কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাদের কাছে নিজের প্রাণনাশের শঙ্কার কথাও জানিয়েছিলেন। তাঁকে হত্যার ঘটনায় মামলার এজাহারভুক্ত আরো দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সোহেলের পরিবার সূত্র জানায়, তিনি কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি সন্ত্রাসীদের একটি তালিকা তৈরি করে দলের মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাতকে দিয়েছিলেন। ওই তালিকায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে থাকা মামলার তথ্যসহ নানা বিষয় উল্লেখ ছিল। ওই তালিকায় থাকা একাধিক ব্যক্তি সোহেল হত্যা মামলার আসামি বলে জানিয়েছে সূত্রটি।

বিষয়টি স্বীকার করেন কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাতও। গতকাল শনিবার সকালে তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডের তিন দিন আগে সোহেলের ওয়ার্ডে কৃষক লীগের সম্মেলনে ছিল। সেখানেই সোহেল তাঁর হাতে সন্ত্রাসীদের একটি তালিকা দেন। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও পুলিশ সুপারকে জানানোর অনুরোধ করেন। সোহেল শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন, তালিকায় থাকা সন্ত্রাসীরা যেকোনো সময় তাঁর ক্ষতি করতে পারে।

কাউন্সিলর সোহেল ও আওয়ামী লীগ নেতা হরিপদ সাহা হত্যার ঘটনায় করা মামলার এজাহারভুক্ত আরো দুই আসামি মো. আশিকুর রহমান রকি (২৯) ও মো. আলম মিয়াকে (৩০) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর আগে মাসুম ও মো. সুমনকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এ নিয়ে মামলায় এ পর্যন্ত চার আসামি গ্রেপ্তার হলেন।

র‌্যাব-১১, সিপিসি-২ কুমিল্লার কম্পানি অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ সাকিব হোসেন বলেন, আশিকুর রহমানকে লালমনিরহাটের চণ্ডীবাজার এবং আলম মিয়াকে কুমিল্লা সদর উপজেলার বড়জালা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁদের থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।



সাতদিনের সেরা