kalerkantho

সোমবার ।  ১৬ মে ২০২২ । ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩  

কালিয়াকৈর পৌর নির্বাচন আজ

তিন দিনেও খোঁজ মেলেনি কাউন্সিলর পদপ্রার্থীর

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

২৮ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তিন দিনেও খোঁজ মেলেনি কাউন্সিলর পদপ্রার্থীর

নিখোঁজ মেহেদী হাসান

কালিয়াকৈর পৌরসভার সাধারণ নির্বাচান আজ। কিন্তু তিন দিন পেরিয়ে গেলেও কালিয়াকৈর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের নিখোঁজ সেই কাউন্সিলর প্রার্থী মেহেদী হাসানের খোঁজ মেলেনি। এতে হতাশায় ভুগছেন তাঁর পরিবার ও কর্মী-সমর্থকরা। তাঁকে অক্ষত অবস্থায় ফিরে পেতে আকুতি জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।

বিজ্ঞাপন

নিখোঁজ কাউন্সিলর প্রার্থী মেহেদী হাসান কালিয়াকৈর পৌরসভার সফিপুর পূর্বপাড়া এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

নিখোঁজ কাউন্সিলরের পরিবার ও কর্মী-সমর্থকদের সূত্রে জানা যায়, কালিয়াকৈর পৌরসভা নির্বাচনে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ডালিম প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলেন মেহেদী হাসান। গত বৃহস্পতিবার সকালে তিনি নিখোঁজ হন এবং তাঁর মোবাইল ফোনও বন্ধ। এ ঘটনায় নিখোঁজ কাউন্সিলর প্রার্থীর বাবা আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করলেও শনিবার পর্যন্ত তাঁকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। পরিবারের লোকজন বলছেন, গত কয়েক দিন ধরে কে বা কারা তাঁকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে হুমকি দিয়ে আসছিল। নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই তাঁকে গুমের উদ্দেশ্যে তুলে নিয়ে যেতে পারে বলে তাঁদের ধারণা। তাঁর কর্মী ও সমর্থকরা বলছেন, মেহেদী হাসানের জনসমর্থন ভালো দেখে ঈর্ষান্বিত হয়ে তাঁকে নির্বাচনী মাঠ থেকে সরানোর জন্য এ ঘটনা ঘটাতে পারে।

নিখোঁজ মেহেদী হাসানের মা নিহার বেগম বলেন, ‘আমার দুই ছেলে-মেয়ের মধ্যে মেহেদী বড়। তাঁর দুটি ছেলে-মেয়ে আছে। নির্বাচনকে ঘিরে কে বা কারা তাঁকে হুমকি দিত। হুমকিদাতাদের নাম জানি না। সুস্থভাবে আমার ছেলেকে ফিরে পেতে চাই। ’

গাজীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও পৌর নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ বলেন, ‘ওই ওয়ার্ডে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁদের মধ্যে ডালিম প্রতীকের প্রার্থী ছিল মেহেদী হাসান।



সাতদিনের সেরা