kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ মাঘ ১৪২৮। ২০ জানুয়ারি ২০২২। ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস

রেমিট্যান্সের গতি এ বছর কমতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা মহামারির মধ্যে দেশে এসে আটকা পড়া প্রবাসীরা সঠিক সময়ে কর্মস্থলে ফিরতে না পারাসহ নানা কারণে চলতি বছরে দেশে রেমিট্যান্সপ্রবাহের গতি কমে যাবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক। ‘রিকভারি কভিড-১৯ ক্রাইসিস থ্রু আ মাইগ্রেশন লেন্স’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এই পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। সংস্থাটি বলছে, ২০২১ সালে বাংলাদেশ দুই হাজার ৩০০ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স পেতে পারে। তবে গত বছরের তুলনায় এর প্রবৃদ্ধির গতি কমতে পারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২১ সালে ভারতের রেমিট্যান্স আনুমানিক ৪.৬ শতাংশ বেড়ে ৮৭ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছাতে পারে। আর ২৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি নিয়ে পাকিস্তানে রেমিট্যান্স রেকর্ড ৩৩ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছাতে পারে।

বাংলাদেশ সম্পর্কে বলা হয়েছে, সরকারের প্রণোদনায় ২০২১ সালে রেমিট্যান্স যদিও প্রাক-মহামারি এবং ২০২০ সালের তুলনায় ৬ শতাংশ বেড়েছে, তার পরও গতি কমে আসার বিষয়টি চোখে পড়ার মতো।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে ১৮.৩৬ বিলিয়ন ডলার দেশে পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। পরের বছর মহামারি শুরু হলে প্রবাসী আয়ে ধস নামার আশঙ্কা করা হয়েছিল। তবে আশঙ্কা পেছনে  ফেলে ২০২০ সালে রেকর্ড দুই হাজার ১৭৪ কোটি ডলার দেশে পাঠান প্রবাসীরা, যা আগের বছরের তুলনায় ২০ শতাংশ বেশি। তবে চলতি অর্থবছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত চার মাসে দেশে আসা রেমিট্যান্সের পরিমাণ আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে ২০ শতাংশ কমে।

আর শুধু অক্টোবরের হিসাবে রেমিট্যান্স কমেছে ২২ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালের অক্টোবরে যেখানে ২১০ কোটি ডলার দেশে এসেছিল, এ বছর অক্টোবরে এসেছে ১৬৪ কোটি ৭০ লাখ ডলার।



সাতদিনের সেরা