kalerkantho

শুক্রবার ।  ২৭ মে ২০২২ । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৫ শাওয়াল ১৪৪

ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে চলছে ভুয়া প্রশ্ন বিক্রি

ডিবির হাতে ধরা দুই চক্রের পাঁচজন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



‘পরীক্ষার প্রশ্ন লাগলে যোগাযোগ করুন। রেজাল্ট চেঞ্জ করতে যোগাযোগ করতে পারেন। ১০০% কমন আসবে। আমি বোর্ডে জব করি।

বিজ্ঞাপন

‘এসএসসি পরীক্ষার্থী ২০২১’ নামের ফেসবুক গ্রুপে ‘স্ট্যানলি সেইবার’ ছদ্মনামের আইডি থেকে এভাবে প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ ও বিকাশ নম্বর দেওয়া হয়েছে। আরেক গ্রুপে একই ধরনের পোস্ট দিয়ে ‘যেকোনো ধরনের পরীক্ষার রেজাল্ট পরিবর্তনের’ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের সহকারী কর্মকর্তা হুমায়ুন আহমেদ তালুকদারের নামে ফেসবুকে আইডি খুলে সেখানে তাঁর পরিচয়পত্রের ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে। শিক্ষা বোর্ডের নামে ‘অ্যাপস’ও চালায় প্রতারকচক্র। যোগাযোগ করা হলে একটি পরীক্ষার প্রশ্নের জন্য বিকাশে দুই হাজার থেকে পাঁচ হাজার টাকা নেয় তারা। এরপর প্রশ্নের নামে দেওয়া হয় সাজেশন, জাল সার্টিফিকেট।

চলতি এসএসসি ও আগামী মাসে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত করে ভুয়া প্রশ্ন বিক্রি করছে প্রতারকচক্র। বিভিন্ন ভুয়া আইডি তৈরি করে তারা শিক্ষার্থীদের গ্রুপে প্রবেশ করে প্রলোভন দেখায়। কিছু শিক্ষার্থী এই প্রতারকচক্রের ফাঁদে পড়ে। গত এক সপ্তাহে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম শাখা নজরদারি চালিয়ে এসব চক্রের পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে। প্রশ্ন ফাঁস বন্ধ হওয়ার পর শুরু হয়েছে প্রশ্ন দেওয়ার নামে অনলাইনে প্রতারণা।

ডিবির যুগ্ম কমিশনার হারুন আর রশিদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘পরীক্ষার আগে থেকে আমাদের সাইবার টিম নজরদারি করছে। এরই মধ্যে প্রশ্ন দেওয়ার নামে প্রতারণা করা চক্র আমাদের হাতে ধরা পড়েছে। অনুরোধ করব কেউ এসব প্রতারণা বা অপরাধে জড়াবেন না। কারো চোখে এসব ধরা পড়লে আমাদের জানান। ’

ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইমের অতিরিক্ত উপকমিশনার আশরাফ উল্লাহ জানান, গত বুধবার রমনা থানায় প্রতারকচক্রের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। এই মামলায় কায়কোবাদ ওরফে সাব্বিরকে ময়মনসিংহের নান্দাইল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ‘স্ট্যানলি সেইবার’ নাম নিয়ে সে প্রশ্ন বিক্রি শুরু করেছিল। পাবনা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় সজিবুর রহমান শাওন নামের আরেকজনকে। সে শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তা হুমায়ূন কবির তালুকদারের নামে আইডি খোলে। হাফিজুর রহমান নয়ন নামের আরেকটি আইডি থেকেও প্রতারণা করা হয়। এরা শিক্ষা বোর্ডের নামে অ্যাপস খুলে প্রশ্ন দেওয়ার প্রস্তাব দেয়। ‘এসএসসি ব্যাচ ২০২১ এক্সাম প্রিপারেশন’ নামের গ্রুপে একটি পোস্টে কমেন্ট করে ‘এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন নিতে চাইলে ইনবক্সে জানাবে’ লিখে কমেন্ট করা হয়। ‘এসএসসি পরীক্ষার্থী ২০২১’ গ্রুপে তারা পোস্ট দিয়ে সব পরীক্ষার প্রশ্ন এমনকি রেজাল্ট পাল্টানোর ঘোষণা দেয়। ‘এক্সাম সাজেশন অব এসএসসি ব্যাচ ২০২১’ এবং ‘এসএসসি ব্যাচ ২০২২’ একইভাবে পোস্ট দিয়েছে।

এইচএসসি পরীক্ষার্থীরাও এদের প্রলোভনে যোগাযোগ করছে। গ্রেপ্তাররা জানায়, বিভিন্ন সাজেশন ডাউনলোড করে তারা এডিট করে প্রশ্ন হিসেবে বিক্রি করেছে।



সাতদিনের সেরা