kalerkantho

শনিবার ।  ২১ মে ২০২২ । ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩  

‘সুজন’-এর উদ্যোগ

ইসি নিয়োগ আইনের খসড়া আইনমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর

তাড়াহুড়া করে আইন প্রণয়ন করা ঠিক হবে না : আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসি নিয়োগ আইনের খসড়া আইনমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনারদের নিয়োগের দাবি দীর্ঘদিনের। কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন মেয়াদ আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি শেষ হচ্ছে। এবারও এ বিষয়ে আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নেই। আইন প্রণয়নের প্রয়োজনীয়তার কথা স্বীকার করে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, সময়সংকটের কারণে এবার আইন প্রণয়ন সম্ভব হচ্ছে না।

বিজ্ঞাপন

এ রকম প্রেক্ষাপটে নাগরিক সংগঠন সুজনের পক্ষ থেকে দেশের চিন্তাশীল ও বিশেষজ্ঞ নাগরিকদের মতামত নিয়ে ‘প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ আইন ২০২১’ শিরোনামে একটি খসড়া আইন প্রস্তুত করা হয়েছে।

সুজনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, আইনের খসড়াটি সরকারের কাছে পৌঁছে দেওয়ার অংশ হিসেবে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার, নির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট ড. শাহদীন মালিক ও অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, কোষাধ্যক্ষ সৈয়দ আবু নাসের বখতিয়ার আহমেদ এবং সুজন কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার খসড়াটি আইনমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেছেন।

এ বিষয়ে ড. বদিউল আলম মজুমদার গত রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আইনমন্ত্রী আমাদের উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন এবং বলেছেন, তাঁর মন্ত্রণালয় থেকেও একটি খসড়া আইন প্রস্তুত করা হচ্ছে। তবে তিনি এ কথাও বলেন, এবার সময়সংকটের কারণে এ আইন প্রণয়ন সম্ভব হবে না। আগেরবারের মতো রাষ্ট্রপতি গঠিত সার্চ কমিটির মাধ্যমেই এবার নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন হবে। ’

বদিউল আলম মজুমদার আরো বলেন, ‘আমরা আইনমন্ত্রীকে প্রস্তাব দিয়েছি, সময়সংকট হলে রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশের মাধ্যমে এটা করা যেতে পারে। কিন্তু তিনি বলেছেন, রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশে নয়, এটি সময় নিয়ে সরাসরি জাতীয় সংসদের মাধ্যমে হবে। ’

অন্যদিকে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, তাড়াহুড়া করে আইন প্রণয়ন করা ঠিক হবে না।

মন্ত্রী বলেন, আগামী জানুয়ারিতে পরবর্তী অধিবেশন বসবে, ফেব্রুয়ারিতে বর্তমান ইসির মেয়াদ শেষ হবে। তাই এই স্বল্প সময়ে ইসি গঠন আইন প্রণয়ন করা সম্ভব নয়।

তিনি আরো বলেন, ইসি গঠনের জন্য যে সার্চ কমিটি করার নিয়ম চালু আছে, তা আইন না হলেও আইনের কাছাকাছি। কারণ এ সার্চ কমিটি রাষ্ট্রপতি গঠন করে থাকেন।



সাতদিনের সেরা