kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

সংক্ষিপ্ত

নোয়াখালীতে আ. লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

নোয়াখালী প্রতিনিধি   

২৯ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে ইউনিয়নের তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের বারিয়াহাট বাজার থেকে লাশটি উদ্ধার করে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ। নিহত আবু সায়েদ রিপন (৫১) মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তালুয়া চাঁদপুরের ভূঁইয়াবাড়ির রফিক উল্যার ছেলে। নিহতের ছেলে ইমরান হোসেন জানান, নোয়াখালী থেকে ঢাকাগামী লাল সবুজ বাস পরিবহনের বেগমগঞ্জ চৌরাস্তা বাস কাউন্টারের ম্যানেজার ছিলেন তাঁর বাবা। প্রতিদিনই তিনি গভীর রাতে মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়িতে ফিরতেন। বুধবার দিবাগত রাত ২টা থেকে ৩টার মধ্যে কাউন্টার থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। পথে কে বা কারা তাঁকে মাথায় কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। তিনি মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে তাঁকে হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা করে বারিয়াহাট বাজারসংলগ্ন মোসলেহ উদ্দিন মাওলানার বাড়ির দরজায় মরদেহ রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। তিনি বলেন, ‘আমার অসুস্থ কাকার উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় যাওয়ার কথা ছিল। তাঁর চিকিৎসার আড়াই লাখ টাকা বাবার সঙ্গে ছিল। ওই টাকাও সন্ত্রাসীরা লুটে নেয়।’

বেগমগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ কিরণ বলেন, ‘রিপনকে বলেছিলাম এবার নয়, আগামী নির্বাচনে তোমাকে প্রার্থী হতে হবে। সে তা মাথা পেতে নেয়।’ তাঁর ধারণা, আবু সায়েদ রিপনের কাছে নগদ টাকা থাকায় ছিনতাইকারীরা এ ঘটনা ঘটাতে পারে। তিনি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন।



সাতদিনের সেরা