kalerkantho

বুধবার । ১২ মাঘ ১৪২৮। ২৬ জানুয়ারি ২০২২। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ঢাকা-সিলেট ৬ লেন মহাসড়ক

সিলেটে উচ্ছ্বাস উন্নতির আশা

সিলেট অফিস   

২৫ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এক দশকেরও বেশি সময় ধরে হবে হচ্ছে করেও নানা কারণে বারবার পিছিয়ে যাচ্ছিল ঢাকা-সিলেট সিক্স লেন মহাসড়ক প্রকল্প। এ নিয়ে সিলেটবাসীর মনে ক্ষোভও ছিল। অবশেষে আলোর মুখ দেখেছে প্রকল্পটি। গতকাল রবিবার প্রকল্পটির কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

বিজ্ঞাপন

এতে সিলেটবাসীর ক্ষোভ দূর হয়েছে। এখন তারা উচ্ছ্বসিত।

সিলেটের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ মনে করে, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে সিলেটের যোগাযোগব্যবস্থায় বিরাট পরিবর্তন আসবে। মানুষের জীবনমান উন্নয়ন, ব্যবসা-বাণিজ্য, আমদানি-রপ্তানি, বিশেষ করে পর্যটন ও শিল্পায়নে বড় ধরনের উন্নয়নের আশা করছে তারা।

সিলেটের নর্থইস্ট ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ফায়জুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণায় আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি আলোর মুখ দেখল। ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক সিক্স লেন হলে পর্যটনশিল্পে বৈপ্লবিক উন্নতি হবে বলে আমি মনে করি। ’

সিলেটের তরুণ ব্যবসায়ী ও ম্যারাথনসহ বিভিন্ন খেলাধুলার আয়োজক স্পোর্টসপলিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইফতি সিদ্দিকী বলেন, ‘আমরা নিয়মিত সিলেটে ম্যারাথন প্রতিযোগিতার আয়োজন করি। সড়কপথ বেহালের জন্য দেশের বিভিন্ন স্থানের অনেক প্রতিযোগী সিলেটে আসেন না। তা ছাড়া যাঁদের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের অফিস ঢাকায় আছে, তাঁদের জরুরি প্রয়োজন পড়লে বিমানে যেতে হয়। এটা বেশ ব্যয়বহুল। সিক্স লেন হয়ে গেলে সহজেই যে কেউ কম সময় ও খরচে ঢাকায় যেতে পারবেন। সড়ক দুর্ঘটনাও কমবে। ’

ট্যুরিজম ডেভেলপার অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশের সহসভাপতি জহিরুল কবির চৌধুরী শিরু বলেন, ‘সব পর্যটকের পক্ষে বিমানের ব্যয় নির্বাহ সম্ভব হয় না। আবার বাসে কিংবা ট্রেনে এলে এখন সাত থেকে আট ঘণ্টা লেগে যায়। তা ছাড়া রাস্তা বেহাল এবং বিপজ্জনক হওয়ায় সড়ক দুর্ঘটনার ভয়েও অনেকে ইচ্ছা থাকলেও আসতে দ্বিধাদ্বন্দ্বে থাকে। সিক্স লেন হলে যাতায়াত সাশ্রয়ী, আরামদায়ক হবে, সময়ও বাঁচবে।



সাতদিনের সেরা