kalerkantho

শনিবার । ১৫ মাঘ ১৪২৮। ২৯ জানুয়ারি ২০২২। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

‘সহনশীলতা না থাকলে সমাজ হবে সন্ত্রাসের অভয়ারণ্য’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৩ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রতিবাদ মানে হামলা, ভাঙচুর নয়। এগুলো সন্ত্রাস। সহনশীলতা না থাকলে এ সমাজ হবে সন্ত্রাসের অভয়ারণ্য। দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নিপীড়নের প্রতিবাদে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত কবিতা পাঠ ও মোমবাতি প্রজ্বালন কর্মসূচিতে এই কথাগুলো বলছিলেন উপাচার্য এমরান কবির চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

একই ঘটনার প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ‘ধর্মে ধর্মে সম্প্রীতি’ শীর্ষক আলোচনাসভা এবং টাঙ্গাইল ও দিনাজপুরের হিলিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে গত বৃহস্পতিবার ওই কর্মসূচির আয়োজন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আবৃত্তি সংগঠন অনুপ্রাস কণ্ঠচর্চা কেন্দ্রের সদস্যরা।

কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এমরান কবির চৌধুরী। এ সময় তিনি বলেন, সব ধর্মের মধ্যে অহিংস চেতনা বিদ্যমান।

কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. শামিমুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দীন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট ড. মোকাদ্দেস উল ইসলামসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিভিন্ন ধর্মের পণ্ডিতরা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দেন গতকাল শুক্রবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অনুষ্ঠিত ‘ধর্মে ধর্মে সম্প্রীতি’ শীর্ষক আলোচনাসভায়।

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে গতকাল একটি শোভাযাত্রা বের হয়ে পৌরসভার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে আজাদ মোড়ে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করা হয়। বক্তব্য দেন ঘোড়াঘাট পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউনুছ আলী মণ্ডল, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজামান ভুট্টু প্রমুখ।  

শ্রীরামকৃষ্ণ মঠ ও আশ্রমের উদ্যোগে টাঙ্গাইল শহরের বটতলায় মন্দিরের সামনে গতকাল সকালে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ টাঙ্গাইল জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার গুণ (ঝন্টু) প্রমুখ।

[প্রতিবেদন তৈরিতে তথ্য দিয়েছেন আমাদের সংশ্লিষ্ট এলাকার প্রতিনিধিরা। ]



সাতদিনের সেরা