kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ১৯ মে ২০২২ । ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩  

তৃতীয় প্রান্তিকে রাজস্ব আয় ৩,৬২১ কোটি টাকা

গ্রামীণফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে মোট তিন হাজার ৬২১ কোটি টাকার রাজস্ব আয় করেছে গ্রামীণফোন লিমিটেড, যা গত বছর এই সময়ের তুলনায় ১.৮ শতাংশ বেশি। এই সময়ে ১৬ লাখ নতুন গ্রাহক অর্জন করায় প্রান্তিক শেষে প্রতিষ্ঠানটির গ্রাহকসংখ্যা দাঁড়িয়েছে আট কোটি ৩৬ লাখে, যা আগের বছর এই সময়ের তুলনায় ৭.৭ শতাংশ বেশি। মোট গ্রাহকের মধ্যে তৃতীয় প্রান্তিক শেষে চার কোটি ৬১ লাখ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে, যা মোট গ্রাহকের ৫৫.১ শতাংশ। গতকাল শুক্রবার গ্রামীণফোন তাদের এই আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

বিজ্ঞাপন

 

গ্রামীণফোনের সিইও ইয়াসির আজমান বলেন, ‘গ্রাহকদের উচ্চগতির ইন্টারনেট সুবিধা প্রদান এবং কাস্টমার এক্সপেরিয়েন্স উন্নত করার লক্ষ্যে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ রয়েছে গ্রামীণফোন। তৃতীয় প্রান্তিকে নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও নতুন স্পেকট্রাম সংযুক্ত অব্যাহত রয়েছে। সেই সঙ্গে আমাদের বাজার পরিচালন পদ্ধতি এবং গ্রাহকদের সুবিধা অনুযায়ী অফার প্রদানের ফলে গ্রাহকরা গ্রামীণফোনকে তাদের পছন্দের নেটওয়ার্ক হিসেবে বেছে নিচ্ছে। তৃতীয় প্রান্তিকে আমাদের নেটওয়ার্কে ২৪ লাখ ডাটা ব্যবহারকারী যুক্ত হয়েছে, যার ফলে ডাটা ব্যবহারকারীর  বছরপ্রতি প্রবৃদ্ধি দাঁড়িয়েছে ৯.৭ শতাংশে। পাশাপাশি গ্রাহকদের কাছে ভয়েস ও ডাটা বান্ডেল প্যাক নিয়ে আসার দিকে মনোনিবেশ করার মাধ্যমে আমরা গ্রাহকদের মধ্যে ভয়েস ব্যবহারকারী থেকে ডাটা ব্যবহারকারীতে রূপান্তরের উচ্চ হার লক্ষ করেছি। এ সময়ে ফোরজি ডাটা ব্যবহারকারী রূপান্তরের হার বছরপ্রতি ৫৫ শতাংশে বেড়েছে, যা ব্যবহৃত ডাটার পরিমাণ গত বছরের চেয়ে ৫২.৪ শতাংশ বৃদ্ধি করেছে। ’ 

গ্রামীণফোনের সিএফও ইয়েন্স বেকার বলেন, ‘কঠোরতর লকডাউনের কারণে তৃতীয় প্রান্তিকের শুরুটা নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত হয়েছিল, কিন্তু কভিড-১৯ সংক্রমণের হার কমতে শুরু করার সঙ্গে সঙ্গে অনেক বিধি-নিষেধ শিথিলও করা হয়েছিল। তা সত্ত্বেও আমরা পার্টনারদের সঙ্গে নিয়ে নেটওয়ার্ক অপারেশন অব্যাহত রেখে এসেছি, যা আমাদের নিরবচ্ছিন্ন প্রবৃদ্ধির অন্যতম প্রধান কারণ। তৃতীয় প্রান্তিক শেষে বছরপ্রতি মোট রাজস্ব আয় দাঁড়িয়েছে তিন হাজার ৬২১ কোটি টাকা, যা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ১.৮ শতাংশে বেশি। একই সময়ে বান্ডেলগুলোর গুরুত্বপূর্ণ অবদানের কারণে সাবস্ক্রিপশন ও ট্রাফিক রাজস্ব ১.৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রান্তিকের সমাপ্তিতে আমাদের ইবিআইটিডিএ (পরিচালন আয়) মার্জিন ৬৩.৩ শতাংশ। এই সময়ের জন্য কর-পরবর্তী নিট মুনাফা ২৩.৬ শতাংশ মার্জিনসহ ৮৫৬ কোটি টাকা। ’



সাতদিনের সেরা