kalerkantho

সোমবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৯ নভেম্বর ২০২১। ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

দাওয়াই

হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে ওজন নিয়ন্ত্রণ জরুরি

১৯ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে ওজন নিয়ন্ত্রণ জরুরি

সাধারণত বয়স ৪০-এর গণ্ডি পেরোলেই হাড়ে জোর কমে, শুরু হয় ক্ষয়। ক্ষয় রোধ করতে দরকার হাড়ের সঠিক যত্ন। সঠিক যত্ন নিলে ও জীবনযাত্রায় কিছু পরিবর্তন আনলে হাড়কে সুস্থ রাখা বা হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো রাখা সম্ভব।

 

হাড়ের সমস্যা এড়াতে করণীয়

►       বদলে ফেলুন জীবনধারা বা লাইফস্টাইল। প্রতিদিন মর্নিং ওয়াক করুন বা সকালে হাঁটুন। এটা খুব জরুরি, যাতে হাড় ভালো থাকে।

►       প্রতিদিন কিছু ফ্রি হ্যান্ড ব্যায়াম করুন। এতে হাড়ের পাশাপাশি দেহের মাংসপেশিও ভালো থাকে।

►       দেহে সঠিক ওজন বজায় থাকলে হাড় ক্ষয় এবং হাড় ভাঙার আশঙ্কা কমে। অতিরিক্ত ওজন বাহু এবং কবজি ফ্র্যাকচারের ঝুঁকি বাড়ায়। তাই হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য আদর্শ ওজন বজায় রাখা জরুরি।

►       হাড়ের স্বাস্থ্যরক্ষায় ভিটামিন ‘ডি’-এর ভূমিকা অনস্বীকার্য। সূর্যালোক ভিটামিন ‘ডি’-এর সবচেয়ে ভালো উৎস। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টার মধ্যে কমপক্ষে আধাঘণ্টা সরাসরি গায়ে রোদ লাগান। এতেও হাড় শক্ত হয়, ক্ষয় রোধ হয়।

 

যা খাবেন

►       কম তেলসমৃদ্ধ খাবার খান। সবুজ শাকসবজি বেশি খান।

►       ক্যালসিয়ামসমৃদ্ধ খাবার খান। ৫০ বছর পর্যন্ত নারীদের এবং ৭০ বছর বয়সী পুরুষদের প্রতিদিন এক হাজার মিলিগ্রাম পরিমাণ ক্যালসিয়াম প্রয়োজন। এর বেশি বয়সী নারী-পুরুষের প্রতিদিন দরকার এক হাজার ২০০ মিলিগ্রাম।

►       প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার নিশ্চিত করুন। প্রতিদিনের ডায়েটে রাখুন মাছ, মাংস, ডিম, মসুর ডাল, সয়া ইত্যাদি।

►       কলা, কমলা, বাদাম, আখরোটসহ বিভিন্ন ধরনের শুকনা ফল ভিটামিন ‘ডি’-এর ভালো উৎস। প্রতিদিন কিছু বাদাম খেলেও ভিটামিন ‘ডি’-এর চাহিদা পূরণ হবে।

 

যা করবেন না

►       ফাস্ট ফুড অথবা জাংক ফুডের প্রতি টান কমান।

►       নিয়মিত দুধ পান করুন।

►       ধূমপান করবেন না। ধূমপান হাড় ক্ষয় বৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করে।

►       দীর্ঘক্ষণ খালি পেটে থাকবেন না।

►       অলস সময় কাটাবেন না। যতটা সম্ভব অ্যাকটিভ থাকুন।

 

স্ক্রিনিং করান

হাড়ে কোনো সমস্যা আছে কি না, তা জানতে চিকিৎসকের পরামর্শে বোন মিনারেল ডেনসিটি (বিএমডি) পরীক্ষাটি করুন। ৩০ বছর বয়সের পরেই এ পরীক্ষাটি করা যায়।

মায়ো ক্লিনিক অবলম্বনে

আতাউর রহমান কাবুল



সাতদিনের সেরা