kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

চাকরি পেলেন নালায় পড়ে নিখোঁজ সালেহর ছেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৩ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নগরীর মুরাদপুর এলাকায় নালায় পড়ে নিখোঁজ হওয়া সালেহ আহমেদের ছেলেকে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী চাকরি দিল চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। গতকাল মঙ্গলবার করপোরেশনের কার্যালয়ে মেয়র রেজাউল করিমের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সালেহর ছেলে সাদেকুল মহিম। এ সময় মেয়র তাঁকে আগামী ১ নভেম্বর থেকে কাজে যোগ দেওয়ার পরামর্শ দেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাদেকুল মহিম বলেন, ‘আমি আরো আগে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে চাকরির জন্য আমার জীবনবৃত্তান্ত জমা দিয়ে এসেছিলাম। আজ আমাকে মেয়র সাহেবের সঙ্গে দেখা করার জন্য ফোন করা হয়। মেয়র সাহেবের সঙ্গে দেখা করেছি। তিনি আমাকে আগামী ১ নভেম্বর থেকে কাজে যোগ দিতে বলেন।’ তবে কোন পদে তাঁকে চাকরি দেওয়া হচ্ছে সে বিষয়টি তিনি জানেন না। গত ২৫ আগস্ট নগরের মুরাদপুর এলাকায় তীব্র স্রোতে পা পিছলে নালায় পড়ে নিখোঁজ হন ৫৫ বছর বয়সী সবজি বিক্রেতা মো. সালেহ আহমদ। তাঁর বাড়ি পটিয়া উপজেলার মনসার টেক এলাকায়। তিনি ওই এলাকার আবদুুল হাকিমের ছেলে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে অভিযান চালিয়েও তাঁর সন্ধান পাননি। পরে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ওই সালেহ আহমদের ছেলে সাদেকুল মহিমকে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

মৃত্যুর কারণ খুঁজতে কমিটি

এদিকে বৃষ্টির কারণে জলাবদ্ধতায় নগরের বিভিন্ন সড়কের পাশে খোলা নালা ও খালে পড়ে একের পর এক প্রাণহানির ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। নির্দেশনা অনুযায়ী চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে প্রধান করে সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার। গত ২৭ সেপ্টেম্বর নগরের আগ্রাবাদ মাজার গেট এলাকায় ফুটপাত থেকে পা পিছলে নালায় পড়ে মৃত্যু হয় আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী শেহেরীন মাহমুদ সাদিয়ার (১৯)। গত ৩০ জুন মেয়রগলি এলাকায় চশমা খালে অটোরিকশা পড়ে গেলে চালক ও এক যাত্রী মারা যান।



সাতদিনের সেরা