kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

সপ্তমীতে দেবীর পায়ে ভক্তদের প্রথম অঞ্জলি

হচ্ছে না কুমারীপূজা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুর্গোৎসবের দ্বিতীয় দিন গতকাল মঙ্গলবার মহাসপ্তমীতে দেবী দুর্গার পায়ে প্রথম পুষ্পাঞ্জলি দিয়েছেন ভক্তরা। সপ্তমীর সকালে গতকাল পূজার শুরুতে দেবী দুর্গার প্রতিবিম্ব আয়নায় ফেলে বিশেষ ধর্মীয় রীতিতে স্নান করানো হয়। এরপর নবপত্রিকা স্থাপন করা হয়। চক্ষুদানের মাধ্যমে দেবী দুর্গার প্রাণ প্রতিষ্ঠা করা হয়। আজ বুধবার মহাষ্টমী পূজা। করোনা পরিস্থিতির কারণে রাজধানীতে এবারও অষ্টমীর অন্যতম আকর্ষণ কুমারীপূজা হচ্ছে না বলে জানিয়েছে পূজা উদযাপন পরিষদ।

গতকাল ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির, ঢাকা রামকৃষ্ণ মঠ ও রামকৃষ্ণ মিশনে করোনার নির্দেশনা অনুসরণ করে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা পালন করা হয়। পূজা শুরু হয় সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটে। পূজা শেষে হাতের মুঠোয় ফুল, বেলপাতা নিয়ে ভক্তরা মন্ত্র উচ্চারণ করতে করতে দেবীর পায়ে এবার পূজার প্রথম অঞ্জলি দেন। ঢাকের বাদ্য, কাঁসর ঘণ্টা, শঙ্খধ্বনিতে দেবীর আরাধনা করা হয়। দুপুরে জাতি-ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে ভক্ত ও দর্শনার্থীদের মাঝে খিচুড়ি বিতরণ করা হয়। বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা পূজা পরিদর্শন করেন।

পঞ্জিকা অনুযায়ী, আজ সকাল ৬টা ৪৫ মিনিটের মধ্যে দুর্গা দেবীর মহাষ্টমী পূজা হবে। সকাল ৮টা ১৪ মিনিট থেকে ৯টা ২ মিনিটের মধ্যে হবে সন্ধিপূজা। মহাষ্টমীতে অনুষ্ঠিত হয় কুমারীপূজা। রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনসহ কয়েকটি স্থানে প্রতিবছর কুমারীপূজা অনুষ্ঠিত হয়। করোনা পরিস্থিতির কারণে গত বছরের মতো এবারও কুমারীপূজা হচ্ছে না। তবে সিলেটের বাহুবল উপজেলার জয়পুর গ্রামে শ্রীশ্রী শচী অঙ্গন ধামে কুমারীপূজা হবে। সপ্তমী থেকেই মণ্ডপে মণ্ডপে প্রতিমা দেখতে ভিড় জমাতে শুরু করেছেন ভক্ত-দর্শনার্থীরা।



সাতদিনের সেরা