kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

বাংলাদেশের কভিড টিকা সনদ গ্রহণ করবে যুক্তরাজ্য

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

৯ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের টিকা নেওয়ার পর যে সনদ দেওয়া হচ্ছে, তার স্বীকৃতি দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার। এর ফলে যুক্তরাজ্য অনুমোদিত কভিড টিকা গ্রহণকারী বাংলাদেশিদের টিকার সনদ নিয়ে ইংল্যান্ডে প্রবেশের পর কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না। ব্রিটিশ সময় আগামী সোমবার ভোর ৪টায় এ নিয়ম কার্যকর হবে।

ব্রিটিশ সরকারের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাজ্য অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, ফাইজার বায়োএনটেক, মডার্না ও জনসনের টিকার অনুমোদন দিয়েছে। ওই টিকাগুলোর ফর্মুলায় তৈরি টিকা যেমন অ্যাস্ট্রাজেনেকা কোভিশিল্ড, অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাক্সজেভরিয়া ও মডার্না তাকেদাও অনুমোদিত টিকা হিসেবে গণ্য হবে। যুক্তরাজ্যে প্রবেশের অন্তত দুই সপ্তাহ আগে ওই টিকাগুলোর পূর্ণ ডোজ সম্পন্ন হতে হবে।

লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশন জানায়, যুক্তরাজ্যের পরিবহন দপ্তরের ঘোষণা অনুযায়ী ব্রিটিশ সরকার অনুমোদিত কভিড-১৯ টিকা ও টিকাদানের সনদের তালিকায় বাংলাদেশের নামও যোগ করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনীম একে স্বাগত জানিয়ে বলেন, যুক্তরাজ্যের এ সিদ্ধান্ত দেশটির সঙ্গে বাংলাদেশের উষ্ণ কূটনৈতিক সম্পর্কের প্রতিফলন। এটি দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য, পর্যটন ও প্রয়োজনীয় যাতায়াতের ক্ষেত্রে বাধাগুলো দূর করতে হাইকমিশনের টেকসই কূটনৈতিক প্রচেষ্টার ফল।

হাইকমিশনার বলেন, যুক্তরাজ্য অনুমোদিত টিকার পূর্ণ ডোজ নেওয়া ব্যক্তিদের এখন আর যুক্তরাজ্যে এসে ১০ দিন হোটেলে বা বাসায় কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না। যুক্তরাজ্যে আসার আগেও তাঁদের কভিড-১৯ পরীক্ষা করা হবে না। তবে ইংল্যান্ডে প্রবেশের দ্বিতীয় দিনে বা তার আগে কভিড-১৯ পরীক্ষা করাতে হবে। বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের দেওয়া কভিড টিকা সনদ যুক্তরাজ্যে গৃহীত হবে।

হাইকমিশনার আরো বলেন, যাঁরা যুক্তরাজ্য অনুমোদিত টিকার পূর্ণ ডোজ সম্পন্ন করেননি তাঁদের ইংল্যান্ডে প্রবেশের পর বাড়িতে বা যেখানে অবস্থান করবেন সেখানে ১০ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। ইংল্যান্ডে প্রবেশের দ্বিতীয় ও অষ্টম দিনে তাঁদের কভিড পরীক্ষা করাতে হবে।

এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর ব্রিটিশ সরকার বাংলাদেশকে যুক্তরাজ্য ভ্রমণের লাল তালিকা থেকে বাদ দেয়। এটি গত ২২ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টায় কার্যকর হয়েছে।



সাতদিনের সেরা