kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

আগারগাঁও ছাড়া অন্য অফিসে আগে মিলবে পাসপোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ঢাকা বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিস বাদ দিয়ে কেউ যদি নিজ জেলা কিংবা উত্তরা ও যাত্রাবাড়ী অফিসে আবেদন করেন তাহলে আগে পাসপোর্ট হাতে পাবেন বলে জানিয়েছেন ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আইয়ুব চৌধুরী। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে ডিআইপি-পাসপোর্ট রিপোর্টার্স ফোরামের মতবিনিময়সভায় মহাপরিচালক এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসে প্রতিদিন যে সক্ষমতা রয়েছে, তার চেয়ে ১০ গুণ পাসপোর্টধারী ব্যক্তি আবেদন করছেন। এ কারণে এখানে পাসপোর্ট পেতে দেরি হচ্ছে। আবার নানা ভুলভ্রান্তির কারণেও পাসপোর্ট আটকে থাকছে। আপনারা পারলে নিজ জেলায় পাসপোর্টের জন্য আবেদন করুন। যাঁদের তাড়াহুড়ো আছে, তাঁরা আগেই পাসপোর্ট হাতে পাবেন। মেশিনে নতুন করে কমান্ড নির্ধারণ করার কোনো সুযোগ নেই। কমান্ড দিয়েই আমাদের মেশিন তৈরি। এখানে সব কিছু মিলে গেলে অটো পাসপোর্ট প্রিন্ট হয়ে যায়। যাঁদের পাসপোর্ট আটকে আছে তাঁদের কোনো না কোনো সমস্যা রয়েছে। তাঁরা অফিসে যোগাযোগ করে সমস্যা সমাধান করে দিলে তবেই পাসপোর্ট প্রিন্ট হবে।’

তিনি বলেন, আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসে এ মুহূর্তে প্রতিদিন পাসপোর্ট দেওয়ার সক্ষমতা রয়েছে প্রায় দুই হাজার। তবে প্রতিদিন আবেদন পড়ছে কয়েক গুণ। আবেদন গ্রহণ প্রক্রিয়াও কম্পিউটারে অটো করা রয়েছে। এ কারণে কেউ যখন আবেদন করে ওই দিনের শ্লট শেষ হয়ে থাকলে পরের দিনের শ্লট নিয়ে নেয় অটোমেটিক্যালি। পরের দিনেরটাও শেষ হলে তার পরের দিন পূরণ হবে। এভাবে আজ পর্যন্ত (২৮ সেপ্টেম্বর) যাঁরা আবেদন করেছেন তাঁরা শ্লট পেয়েছেন আগামী ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত। এই পদ্ধতিতে কারও হাত নেই বলে জানান ডিজি।

ডিজি বলেন, ‘যত দিন পর্যন্ত শতভাগ ই-পাসপোর্ট দেওয়ার ক্যাপাসিটি অর্জন সম্ভব হবে না, তত দিন এমআরপি চালু থাকবে। তবে বাংলাদেশে আমরা এমআরপি নিরুৎসাহিত করছি। এখন যেসব এমআরপি দেওয়া হচ্ছে, তার ৯৯ ভাগ প্রবাসী। প্রবাসীদের এ জন্য দেওয়া হচ্ছে যে ৭৫টি মিশনে এখনো ই পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু করা যায়নি।



সাতদিনের সেরা