kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ইউএনসিটিএডি এলডিসি প্রতিবেদন

টেকসই উত্তরণে জিএসপি নির্ভরতা কমাতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বল্পোন্নত আয়ের দেশ (এলডিসি) থেকে বাংলাদেশের উত্তরণ ঘটবে ২০২৬ সালে। ফলে বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বেশ কিছু সুযোগ-সুবিধা হারাবে বাংলাদেশ। তাই এলডিসি থেকে উত্তরণ টেকসই করতে বাংলাদেশকে অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য সুবিধার (জিএসপি) নির্ভরতা থেকে সরে এসে উন্নয়ন ও উৎপাদন খাতে বিনিয়োগ করতে হবে। গতকাল সোমবার বিকেলে ঢাকা ও জেনেভা থেকে একযোগে প্রকাশিত ২০২১ সালের আংকটাড এলডিসি প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে এমন সুপারিশ করা হয়েছে।

বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষ ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন। বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়ক মিয়া সেপ্পো, সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) সম্মাননীয় ফেলো মোস্তাফিজুর রহমানসহ অন্য অতিথিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। প্রতিবেদনের বাংলাদেশ অংশ উপস্থাপন করেন জিওভানি ভালিনসিসি।

অনুষ্ঠানে জিওভানি ভালিনসিসি বলেন, এলডিসি থেকে উত্তরণের পর বাংলাদেশের স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও সামাজিক সুরক্ষায় আরো বিনিয়োগ লাগবে। বিশেষ করে উৎপাদনশীল খাতে বিনিয়োগ দ্বিগুণ করতে হবে। আর এ বিনিয়োগ করতে হবে সুনির্দিষ্ট খাতগুলোকে চিহ্নিত করে। অভ্যন্তরীণভাবে এ বিনিয়োগ সম্পূর্ণ সম্ভব নয়। ফলে আরো বিদেশি বিনিয়োগে আকর্ষণ বাড়াতে হবে।

বাংলাদেশ এলডিসি থেকে উত্তরণ ঘটলেও তখনো কিছু কাঠামোগত দুর্বলতা থাকবে বলে মন্তব্য করেন মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি বলেন, এলডিসি থেকে উত্তরণের পর বাংলাদেশ যে কম সুদে এবং বিভিন্ন ছাড় দিয়ে ঋণ পেত, সেই সুবিধা কমে আসবে। যে ঋণের সুদ ০.৭৫ থেকে ১ শতাংশ হতো, তা দুই থেকে আড়াই শতাংশে যাবে। সেই সঙ্গে যোগ হবে কঠিন শর্ত। ফলে বাংলাদেশের সেই প্রস্তুতি থাকতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ৪২ শতাংশ শ্রমিক থেকে ১৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি কৃষি খাত থেকে অর্জন হয়। করোনার প্রভাব বাংলাদেশের কৃষি খাত দ্রুত কাটিয়ে উঠলেও সেবা খাতে এখনো এর প্রভাব দেখা যাচ্ছে। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের পর এ ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে গেলে উৎপাদন খাত এবং দক্ষতা উন্নয়ন খাতে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। সেই সঙ্গে যেহেতু ২০২৬ সালের পর প্রথাগত সুবিধাগুলো থাকবে না, ফলে আন্তর্জাতিকভাবে নতুন কোনো সহযোগিতা লাগবে। এ সময় বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষ বলেন, ‘আমাদের করোনার প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে উঠতে সহযোগিতা দরকার।



সাতদিনের সেরা