kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ কার্তিক ১৪২৮। ২৮ অক্টোবর ২০২১। ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিশু বিবেচনার বয়স বিষয়ে চিন্তার সময় এসেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শিশু বিবেচনার বয়স বিষয়ে চিন্তার সময় এসেছে

বর্তমান আইনে ১৮ বছরের নিচে সবাইকে শিশু হিসেবে গণ্য করা হয় জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, যদিও এই বয়সে অনেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হয় যান। সে জন্য এ বিষয়টি নিয়ে চিন্তার সময় এসেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর মগবাজারের মধুবাগে বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান খান কমপ্লেক্স অডিটরিয়ামে কিশোর অপরাধবিরোধী সামাজিক প্রচারণা কার্যক্রম ও এর অংশ হিসেবে র‌্যাবের নির্মিত টিভি বিজ্ঞাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।

ভবিষ্যতে যারা দেশকে নেতৃত্ব দেবে সেই তরুণ প্রজন্ম, সেই কিশোর-তরুণরা যেন পথ না হারায়, সে জন্য সবাইকে সচেতন থাকার আহবান জানিয়ে আসাদুজ্জামান খান বলেন, ছেলে-মেয়েরা কোথায় যাচ্ছে, তা অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে। মা-বাবা যদি সন্তানের প্রতি খেয়াল না করেন শুধু আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী দিয়ে তাদের নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। শুধু অভিযানের মাধ্যমে কিশোর গ্যাং প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়।

কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণে অভিভাবকদের সচেতন থাকার পাশাপাশি মাদক নিয়ন্ত্রণে সবাইকে কাজ করার আহবান জানান আসাদুজ্জামান খান।

তিন-চার বছর ধরে কিশোর গ্যাং আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে অনেক চ্যালেঞ্জ তৈরি করেছে জানিয়ে অনুষ্ঠানে পুলিশ মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, কিশোর আইন হালনাগাদ করা হয়েছে। ১৮ বছরের নিচে সবাই শিশু। এর আগে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হলেও বর্তমান আইনের কারণে এখন আর সেভাবে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। গ্রেপ্তারের সঙ্গে সঙ্গে তাদের কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানো হয়। কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণে অভিভাবক ও সামাজিক নিয়ন্ত্রণের ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, কমিউনিটির একাত্মতার মাধ্যমে সামাজিক নিয়ন্ত্রণ জরুরি।

সভাপতির বক্তব্যে র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, কিশোর গ্যাংয়ে শুধু কিশোররা থাকে না। এর মধ্যে বড়রাও থাকেন। তাঁরাই এই গ্যাংগুলোর নেতৃত্ব দেন। কিশোর অপরাধীদের গ্রেপ্তার করলে প্রবেশন অফিসারের কাছে দিতে হয় জানিয়ে তিনি বলেন, উপজেলা পর্যায়ে প্রবেশন অফিসার পাওয়া অনেক কঠিন ও জটিল।



সাতদিনের সেরা